মেইন ম্যেনু

রাবি শিক্ষক হত্যায় শিবির নেতা আটক

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) শিক্ষক রেজাউল করিম সিদ্দিকী হত্যাকাণ্ডে আটক যুবক ইসলামী ছাত্র শিবিরের নেতা বলে জানিয়েছে পুলিশ।

রোববার বিকেলে রাজশাহী মহানগর গোয়েন্দা পুলিশের অফিসার ইনচার্জ (ওসি) খন্দকার জাহিদুল ইসলাম বিষয়টি নিশ্চিত করেন। শনিবার রাত আড়াইটার দিকে নগরীর ছোট বোনগ্রাম এলাকার নিজ বাসা থেকে তাকে আটক করা হয়।

ওসি জাহিদুল ইসলাম জানান, আটক হাফিজুর রহমান রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের লোকপ্রশাসন বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী। তিনি রাজশাহী মহানগরের ১৯ নম্বর ওয়ার্ড শাখা শিবিরের সেক্রেটারি। তাকে মহানগর ডিবি অফিসে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

তবে এর আগে আরএমপির অতিরিক্ত কমিশনার ও হত্যার ঘটনার মনিটরিং টিমের প্রধান তমিজউদ্দিন সরদার একজন যুবককে আটকের বিষয়টি নিশ্চিত করলেও তার পরিচয় জানায়নি।

রোববার সকাল ৯টায় উপাচার্যের বাসভবনে হত্যার ঘটনার সার্বিক বিষয় তদারকির জন্য গঠিত ‘মনিটরিং টিম’ রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের সঙ্গে আধা ঘণ্টাব্যাপী বৈঠক করে। ওই বৈঠক শেষে বেরিয়ে অতিরিক্ত কমিশনার তমিজউদ্দিন সরদার সাংবাদিকদের বলেন, চাঞ্চল্যকর এ হত্যার ঘটনাকে পুলিশ সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়ে তদন্ত কাজ চালিয়ে যাচ্ছে।

শনিবার সকাল সাড়ে ৭টার দিকে নিজের বাড়ি থেকে মাত্র ৫০ গজ দূরে কুপিয়ে হত্যা করা হয় ইংরেজি বিভাগের এই শিক্ষককে। মোটর সাইকেলে আসা দুই যুবক তাকে কুপিয়ে পালিয়ে যায় বলে প্রত্যক্ষদর্শীদের উদ্ধৃত করে জানিয়েছে পুলিশ।

মধ্যপ্রাচ্যভিত্তিক জঙ্গিগোষ্ঠী আইএস এ হত্যার দায় স্বীকার করেছে বলে শনিবারই খবর দেয় জঙ্গি হুমকি পর্যবেক্ষণকারী এক ওয়েবসাইট। পুলিশও জঙ্গি গোষ্ঠীর সংশ্লিষ্টতার সন্দেহের কথা বলেছে।

নিহত অধ্যাপকের ছেলে রিয়াসাত ইমতিয়াজ সৌরভ শনিবার রাতে অজ্ঞাতপরিচয় ব্যক্তিদের আসামি করে বোয়ালিয়া থানায় একটি হত্যা মামলা করার পর গোয়েন্দা পুলিশকে তদন্তের দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে।