মেইন ম্যেনু

রাবি শিক্ষার্থীকে মারধর

রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের (রাবি) দর্শন বিভাগের এক শিক্ষার্থীকে মারধর করেছে নৃবিজ্ঞান বিভাগের প্রথম বর্ষের হীরা নামের এক শিক্ষার্থী । সোমবার বেলা ১১টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের মমতাজ উদ্দিন কলা ভবনের সামনে এ ঘটনা ঘটে। মার খাওয়া দর্শন বিভাগের চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থীর নাম সাদ্দাম হোসেন।

খোজ নিয়ে জানা যায়, দর্শন বিভাগের চতুর্থ বর্ষের শিক্ষার্থী সাদ্দাম হোসেন ও নৃবিজ্ঞান বিভাগের প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থী হীরা বিশ্ববিদ্যালয় সংলগ্ন বিনোদপুর বাজারে দারুস সালাম ছাত্রাবাসে থাকেন। রোববার তাদের মধ্যে টেলিভিশন দেখাকে কেন্দ্র করে কথা কাটাকাটি ও মারধরের ঘটনা ঘটে।

পরে সকালে সাদ্দাম ক্যাম্পাসে ক্লাস করার জন্য আসলে মোবাইলে ক্ষুদে বার্তা পাঠিয়ে হীরা তাকে বিশ্ববিদ্যালয়ের মমতাজ উদ্দিন কলা ভবনের সামনে আসতে বলে। একটু পরে সাদ্দাম সেখানে আসলে হীরা, রাজুসহ ৮-১০ মিলে তাকে বেধড়ক মারধর করে।

এ বিষয়ে সাদ্দাম হোসেন বলেন, “রোববার রাতে টিভি দেখাকে কেন্দ্র করে আমাদের মধ্যে সামান্য বাকবিতন্ডা হয়। এক পর্যায়ে হীরা আমাকে মারার জন্য স্ট্যাম্প নিয়ে আসলে আমি তাকে বাধা দেই। আজ আমাকে সে মোবাইলে এসএমএসের মাধ্যমে হুমকি দিয়ে বলেন, ‘কোন ভয় নেই, তোর বিভাগের সামনে আছি, তুই নিচে আয়’। পরে আমি ক্লাস শেষ করে আমি নিচে আসলে হীরা,রাজুসহ ৮-১০ মিলে আমাকে ব্যাপক মারধর করে।”

বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রক্টর প্রফেসর তরিকুল হাসান বলেন, “ঘটনায় জড়িতদের অফিসে নিয়ে আসার পরে মীমাংসা করে দেওয়া হয়েছে। তারা আর এই ধরনের কাজ করবে না এই মর্মে তাদের কাছ থেকে একটি লিখিত জবানবন্দী নেওয়া হয়েছে।”