মেইন ম্যেনু

রাশিয়ায় নির্দেশিকা না মেনেই চলছে ঝুঁকিপূর্ণ সেলফি, আবারও প্রাণহানি

নিরাপদে সেলফি তোলা নিয়ে রুশ পুলিশের নির্দেশিকার মধ্যেই আবারও দেশটিতে ঘটেছে সেলফিজনিত মৃত্যুর ঘটনা। গেল সপ্তাহে ঝুঁকি নিয়ে সেলফি তুলতে গিয়ে ১৭ বছর বয়সী এক কিশোর প্রাণ হারিয়েছেন বলে বুধবার ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম দ্য মিররের বরাতে জানিয়েছে খালিজটাইমস।।

ঝুঁকি নিয়ে সেলফি তোলা এবং এতে হতাহতের কথা চিন্তা করে গেল জুলাই মাসে নিরাপদে সেলফি তোলার নির্দেশিকা দেয় রাশিয়ার পুলিশ। কিন্তু সেই নিয়ম ও বন্ধুদের নিষেধের তোয়াক্কা না করে সেলফি তুলতে গিয়ে বলি হন রাশিয়ার ঐ কিশোর।
ঝুঁকি নিয়ে ৯ তলার ছাদ থেকে সেলফি তুলতে গিয়ে সেখান থেকে পড়ে গেল সপ্তাহে নিহত হন ওই স্কুল ছাত্র।

ভবনের ছাদের পাশে দঁড়িতে ঝুঁলে সেলফি তুলতে গিয়ে দঁড়িসহ সেখান থেকে পড়ে যান ওই কিশোর। মারত্মক আহত অবস্থায় তাকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে দুই ঘন্টা পর মৃত্যু হয় তার।

এর আগেও বহু ঝুঁকিপূর্ণ ছবি তুলে ইনস্টাগ্রামে আপলোড করা ওই যুবকের পোস্ট করা শেষ সেলফিটি হচ্ছে তিনি একটি ভবনকে একহাতে ধরে ঝুলে আছেন।

প্রকাশিত প্রতিবেদন অনুযায়ী তিনি কখনোই তার বন্ধুদের নিষেধাজ্ঞা কানে তোলেন নি। তবে তার মৃত্যুর ‍কারণ অনুসন্ধানে তদন্ত চালানো হচ্ছে বলেও জানানো হয়েছে ওই প্রতিবেদনে।

তবে সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত সর্বশেষ সংবাদ অনুযায়ী রাশিয়ায় হাঙ্গরের আক্রমণের চাইতেও বেশি মৃত্যু হয়েছে সেলফি তুলতে গিয়ে।

চলতি বছরের এ পর্যন্ত সেলফি তুলতে গিয়ে ১২ জনের মৃত্যু হয়েছে, যেখানে হাঙ্গরের আক্রমণে মৃত্যু হয়েছে আট জনের।