মেইন ম্যেনু

রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম বাতিল হলে জেহাদ ঘোষণা : হেফাজত

চট্টগ্রামভিত্তিক ইসলামী সংগঠন হেফাজতে ইসলামের নেতারা বলেছেন, বাংলাদেশের সংবিধান থেকে রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম বাতিল করা হলে সারাদেশে জেহাদ ঘোষণা করা হবে। ইসলাম রক্ষার জন্য কোটি কোটি জনতা বুকের তাজা রক্ত ঢেলে দেবে।

নেতারা বলেন, আমাদের এবারের সংগ্রাম রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম রক্ষার সংগ্রাম। বাংলাদেশের সংবিধান থেকে রাষ্ট্রধর্ম বাদ দেওয়ার ষড়যন্ত্র এদেশের কোটি কোটি তৌহিদি জনতা প্রতিহত করবে।

শুক্রবার বাদ জুমা চট্টগ্রামের আন্দরকিল্লা শাহী জামে মসজিদ প্রাঙ্গণে হেফাজতে ইসলামের বিক্ষোভ সমাবেশে নেতারা এসব কথা বলেন।

হেফাজতে ইসলামের কেন্দ্রীয় মহাসচিব আল্লামা জুনায়েদ বাবুনগরী বলেন, যদি রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম বাদ দেওয়া হয়, তাহলে হেফাজতে ইসলামের ব্যানারে কঠিন, কঠোর কর্মসূচি ঘোষণা করা হবে। আমরা প্রয়োজনে বুকের তাজা রক্ত ঢেলে দেব। আমরা কারও পক্ষে কারও বিপক্ষে বলব না। আমরা শুধু ইসলামের পক্ষে বলব। কাউকে গদিতে বসানো আর কাউকে গদি থেকে নামানো আমাদের কাজ নয়। কোনো দলের এজেন্ডা বাস্তবায়ন করা আমাদের কাজ নয়।

ইসলাম কখনো সন্ত্রাস, জঙ্গিবাদ সমর্থন করে না উল্লেখ করে বাবুনগরী বলেন, ফুল অনেক আছে, কিন্তু জাতীয় ফুল শাপলা। মাছ অনেক আছে, কিন্তু জাতীয় মাছ ইলিশ। ফল অনেক আছে, কিন্তু জাতীয় ফল কাঁঠাল। ভাষা অনেক আছে কিন্তু আমাদের জাতীয় ভাষা বাংলা। তাহলে ধর্ম অনেক থাকলেও রাষ্ট্রধর্ম কেন ইসলাম হবে না?

তিনি বলেন, সংবিধান থেকে রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম যদি বাতিল হয় তাহলে রাষ্ট্রীয়ভাবে, সাংগঠনিকভাবে কোনো মুসলমান তার মুসলমান পরিচয় নিয়ে থাকতে পারবে না। কোনো মুসলমান মুসলমান থাকতে পারবে না। হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিষ্টান সম্প্রদায়ের মানুষদেরও রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম রক্ষার আন্দোলনে শরিক হওয়ার আহ্বান জানিয়ে বলেন, ইসলাম শান্তির ধর্ম। রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম থাকলে সবার জন্য শান্তি আসবে। হিন্দু বৌদ্ধ খ্রিষ্টান সব সম্প্রদায়ের মানুষের জন্য শান্তি হবে।

বিক্ষোভ সমাবেশে আরো বক্তব্য রাখেন-হেফাজতে ইসলামের যুগ্ম মহাসচিব মাঈনুদ্দিন রুহী, কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক আজিজুল হক ইসলামাবাদী, কেন্দ্রীয় অর্থসচিব ইলিয়াছ ওসমানি, হেফাজতের ঢাকা মহানগর কমিটির যুগ্ম সচিব মুফতি ফখরুল ইসলাম, হেফাজতে নেতা আহসানউল্লাহ মাস্টার প্রমুখ।