মেইন ম্যেনু

রাষ্ট্রবিজ্ঞানে রান্না শেখানো হয় : এইচএসসিতে ভারতীয় শীর্ষ মেধাবী

মাধ্যমিকে জিপিএ-৫ পাওয়া কয়েক শিক্ষার্থীর কিছু সাধারণ জ্ঞানের প্রশ্নের ভুল উত্তর দেওয়া নিয়ে বাংলাদেশে যখন ব্যাপক আলোচনা-সমালোচনার ঝড় বয়ে যাচ্ছে ঠিক সেই সময়ই ভারতেও ঘটে গেছে এ রকম একটি ঘটনা।

গত সপ্তাহে এইচএসসির ফল প্রকাশের পর বিহার অঙ্গরাজ্যের সেরা দশ মেধাবীকে বেশ কিছু প্রশ্ন করেছিল একটি স্থানীয় টেলিভিশন চ্যানেল। ওই শিক্ষার্থীরাও রীতিমতো ভুল উত্তর দিয়ে দেশটিতে সমালোচনার ঝড় তুলেছেন।

এইচএসসিতে কলা অনুষদ থেকে শীর্ষস্থান দখল করেছেন বিহারের রুবি রায়। তাকে প্রশ্ন করা হয়েছিল রাষ্ট্রবিজ্ঞানে কী পড়ানো হয়? রুবি রায় বলেন, ‘এতে রান্না শেখানো হয়’।

বিজ্ঞান অনুষদ থেকে বিহারে শীর্ষস্থান অধিকারী আরেক শিক্ষার্থীর কাছে জানতে চাওয়া হয় পানি এবং এর সংকেত এইচ-২০’র মধ্যে সম্পর্ক কী? ওই শিক্ষার্থীও এর উত্তর দিতে পারেননি।

এ ঘটনায় বিব্রত দেশটির সরকার বলছে, আগামী সপ্তাহে বিহারের ওই ১০ শিক্ষার্থীকে নতুন করে পরীক্ষা দিতে হবে।

rubi-rai-bihar-topper20160601133204

বিহারের শীর্ষস্থান অধিকারী ১০ শিক্ষার্থীর অধিকাংশই রাজধানী পাটনা থেকে মাত্র ২০ কিলোমিটার দূরে ভিএন রায় কলেজের। এই কলেজে পরীক্ষার সময় ব্যাপক নকলের অভিযোগ রয়েছে।

এর আগে, গত বছর ভারতে দশম শ্রেণির পরীক্ষায় ব্যাপক নকলের চিত্র উঠে আসে আন্তর্জাতিক বেশ কিছু গণমাধ্যমে। পরে দেশটির সরকার নতুন আইন করে। পরীক্ষায় নকলে সহায়তাকারী প্রাপ্ত বয়স্কদের ৬ বছরের কারাদণ্ডের বিধান করা হয় ওই আইনে। সূত্র : এনডিটিভি।