মেইন ম্যেনু

রাসেল আমার কোলেই মানুষ, বলে কাঁদলেন প্রধানমন্ত্রী

ছোটভাই শেখ রাসেলের জন্মদিন উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে স্মৃতিচারণা করতে গিয়ে আবেগাপ্লুত হয়ে পড়েন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

একপর্যায়ে টিস্যুপেপার দিয়ে চোখের পানি মুছতে মুছতে কান্নাজড়িত কণ্ঠে শেখ হাসিনা বলেন, ‘রাসেল তো আসলে আমার কোলেই মানুষ। ছোট্ট শিশু ভাইটি।…মাঝে মাঝে আমি লিখি। সেই স্মৃতিগুলো লিখে রাখার চেষ্টা করেছি। কারণ ও তো আমাদের একটা খেলার পুতুলের মতো ছিল। আমরা সব ভাইবোন ব্যস্ত ছিলাম রাসেলকে নিয়ে।’

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ছোট ছেলে শেখ রাসেলের ৫২তম জন্মবার্ষিক উপলক্ষে আজ মঙ্গলবার রাজধানীতে রাজধানীর কৃষিবিদ ইনস্টিটিউটে এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করে শেখ রাসেল জাতীয় শিশু-কিশোর পরিষদ।

নিজের বক্তব্যে শেখ হাসিনা বলেন, বাংলাদেশের কোনো শিশুই গৃহহারা থাকবে না এবং শিক্ষার আলো থেকেও বঞ্চিত হবে না। তিনি বলেন, ‘একটা মানুষও এ দেশে ক্ষুধার্ত থাকবে না, গৃহহারা থাকবে না। প্রতিটি শিশু স্কুলে যাবে, পড়াশোনা করবে, মানুষের মতো মানুষ হবে। নিজেদের ভেতরের মেধা বিকাশের সুযোগ হবে সেই ধরনের একটা সমাজ ব্যবস্থা গড়ে তোলাটাই আমার লক্ষ্য।’

শিশু-কিশোররাই আগামীর ভবিষ্যৎ উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী, আধুনিক বিশ্বের সঙ্গে তাল মিলিয়ে নিজেদের গড়ে তোলার আহ্বান জানান।

শেখ হাসিনা বলেন, ‘দেশের জন্য জাতির জন্য সবসময় যেকোনো ত্যাগ স্বীকারে প্রস্তুত থাকতে হবে। জঙ্গিবাদ, মাদকাসক্তি এসব পথ পরিহার করে নিজেকে আদর্শবান মানুষ হিসেবে গড়ে তুলতে হবে। বাঙালি জাতি আজকে যে সম্মান পেয়েছে সে সম্মানটা ধরে রাখতে হবে।’

শিশু-কিশোরদের ভবিষ্যৎ সুন্দর করতেই সরকারের সব উন্নয়নকাজ বলেও উল্লেখ করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।