মেইন ম্যেনু

রাস্তায় হঠাৎ ‘নগ্ন ট্রাম্প’

যুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্ক শহরের পার্কে চলতে গিয়ে হঠাৎ বিষম খেতে হলো অনেক পথচারীকে। পার্কের চত্বরে দাঁড়িয়ে আছেন রিপাবলিকান পার্টির প্রেসিডেন্ট প্রার্থী ডোনাল্ড ট্রাম্প। পুরো নগ্ন।

বাস্তবতা হলো, পার্কে দাঁড়িয়ে থাকা লোকটি আসলে ট্রাম্প নন, তাঁর প্রমাণ সাইজের একটি মূর্তি। কিন্তু এতটাই দক্ষভাবে মূর্তিটি গড়া হয়েছে, যা দেখলে অনেকে আসল ট্রাম্প মনে করে ভুল করবেন।

বিবিসির খবরে বলা হয়, স্থানীয় সময় বৃহস্পতিবার নিউইয়র্কের মতোই লস অ্যাঞ্জেলেস, সিয়াটল, সানফ্রান্সিসকো, ক্লিভল্যান্ডের ব্যস্ত রাস্তায় বা পার্কে হঠাৎ করেই ডোনাল্ড ট্রাম্পের নগ্ন মূর্তি দেখা যায়।

বিরস বদনের ট্রাম্পের এসব মূর্তি বানিয়েছে ক্লিভল্যান্ডের এক ভাস্কর। আর বিভিন্ন মার্কিন শহরে এগুলো স্থাপন করেছে ইনডেকলাইন নামক একটি সংগঠন।

এক বিবৃতিতে ইনডেকলাইন জানায়, ভাস্কর্যগুলোতে যুক্তরাষ্ট্রের কুখ্যাত ও ঘৃণিত এক রাজনীতিবিদের বাহ্যিক ও রূপক প্রকাশ ঘটানো হয়েছে।

মূর্তিগুলোর একটি ভিডিও প্রকাশ করেছে ইনডেকলাইন। এরই মধ্যে এই ভিডিওতে সয়লাব হয়ে গেছে সামাজিক যোগাযোগের বিভিন্ন মাধ্যম।

ভিডিওতে দেখা যায়, স্মার্টফোনের ক্যামেরায় অনেকেই ট্রাম্পের মূর্তির ছবি তোলেন। অনেকে আবার তোলেন সেলফি। কেউ কেউ ট্রাম্পের মূর্তির পাশে বিভিন্ন ভঙ্গিমায় ছবিও তোলেন। এককথায় আলোচনা ও সাড়া ফেলতে সক্ষম হয়েছে ইনডেকলাইনের প্রকল্প।

তবে নিউইয়র্ক শহর কর্তৃপক্ষ বেরসিকের পরিচয় দিয়েছে। এরই মধ্যে শহরটিতে রেখে যাওয়া ট্রাম্পের মূর্তি সরিয়ে ফেলা হয়েছে। অপর মূর্তিগুলোর ভাগ্যে কী ঘটেছে, তা এখনো জানা যায়নি।

এদিকে বিভিন্ন শহরে নগ্নমূর্তি স্থাপনের বিষয়ে এখনো কোনো মন্তব্য করেনি ডোনাল্ড ট্রাম্পের নির্বাচনী প্রচারণা দল।



« (পূর্বের সংবাদ)