মেইন ম্যেনু

‘রায়ের কপি পেলেই তারেককে দেশে আনার ব্যবস্থা’

রায়ের কপি হাতে পাওয়ার পর তারেক রহমানকে দেশে ফিরিয়ে আনতে ব্যবস্থা নেবে সরকার। আইনমন্ত্রী বলেছেন, জঙ্গিদের মামলায় গঠিত বিশেষ সেলে সন্ত্রাস দমন আইনে ইতিমধ্যেই ১১৭টি মামলার অনুমোদন দেয়া হয়েছে।

রাজধানীতে নবনির্মিত তিনটি রেজিস্ট্রি অফিসের উদ্বোধন করতে রবিবার সকালে তেজগাঁওয়ের রেজিস্ট্রেশন কমপ্লেক্সে এসেছিলেন আইনমন্ত্রী আনিসুল হক।

সেখানে বিএনপির সিনিয়র ভাইস প্রেসিডেন্ট তারেক রহমানকে দেশে ফিরিয়ে আনার ব্যপারে প্রশ্ন ছিলো গণমাধ্যমের। জবাবে তিনি বলেন, সার্টিফায়েড কপিটা পেতে হবে, সেটা এখনো হাতে পাইনি। তাকে ফিরিয়ে আনার উদ্যোগ এখন আইন মন্ত্রণালয় আর নেবে না, উদ্যোগ নেবে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। তবে আইন মন্ত্রণালয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে পরামর্শে থাকবে।

সাম্প্রতিক জঙ্গি মামলা পরিচালনায় বিশেষ সেল এর অগ্রগতির বিষয়েও কথা বলেন আইনমন্ত্রী। জানান, বিচারিক আদালত থেকে স্যাংশনের জন্য যে মামলাগুলো এসেছিলো, সেগুলি আইন অনুযায়ী যেভাবে স্যাংশন চাওয়া প্রয়োজন ঠিক সেই পদ্ধতিতে আসেনি। পরে বিচারিক আদালতকে আইন মন্ত্রণালয় থেকে এই তথ্য জানানো হলে সঠিক পন্থায় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে স্যাংশনের জন্য পত্র এসেছে। এর ২৪ ঘণ্টার মধ্যেই ১১৭টি মামলা স্যাংশন হয়েছে।

এদিকে জামায়াত নিষিদ্ধের বিষয়ে অগ্রগতি কতদূর জানতে চাওয়া হলে, এখনো মন্ত্রী পরিষদেই ওঠেনি বলে মন্তব্য করেন আইনমন্ত্রী। তবে খুব শিঘ্রই ওঠার কথাও জানিয়েছেন তিনি।