মেইন ম্যেনু

রিছাং ঝরনায় ছিনতাই, গণধোলাই হজম করলেন আ’লীগ নেতার ছেলে

খাগড়াছড়ির জেলার পর্যটন স্পট রিছাং ঝরনায় ছিনতাই করতে গিয়ে গণধোলাই হজম করলেন মহালছড়ি উপজেলা আওয়ামী লীগ সভাপতির ছেলে দেবস্মিত খীসা (১৫)। বৃহস্পতিবার দুপুর দেড়টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। ছিনতাইকারী যুবককে মাটিরাঙা থানা পুলিশ আটক করে আদালতে প্রেরণ করে। থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. সাহাদাত হোসেন টিটু আটকের সত্যতা স্বীকার করেছেন।

ছিনতাইয়ের শিকার মাটিরাঙ্গা উপজেলার গোমতি এলাকার শাহাদত হোসেন জানান, বৃহস্পতিবার দুপুর দেড়টার দিকে তিনি স্ত্রীকে নিয়ে রিছাং ঝরনায় ঘুরতে গেলে ছিনতাইকারীর কবলে পড়েন। ছিনতাইকারীরা তাকে মারধর করে মোবাইল ফোন ও টাকা ছিনতাই করে পালিয়ে যাওয়ার সময় অন্য পর্যটকরা ধাওয়া করে দেবস্মিত চাকমা নামে একজনকে ধরে গণধোলাই দিয়ে পুলিশে দেন।

মাটিরাঙ্গা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মো. সাহাদাত হোসেন টিটু জানান, ছিনতাইয়ের ঘটনার সঙ্গে জড়িত চারজনের নাম পাওয়া গেছে। আটক দেবস্মিত খীসার বাবার নাম নিলৎপল খীসা। তিনি জেলার মহালছড়ি উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও পানছড়ি কলেজের অধ্যাপক। অপর ছিনতাইকারীরা হলেন- জেলা সদরের খাগড়াপুরের অনন্ত ত্রিপুরার ছেলে শিমুল ত্রিপুরা (১৫), নতুন কুঁড়ি ক্যান্টনমেন্ট স্কুলের অষ্টম শ্রেণীর ছাত্র মেভিস চাকমা (১৫), খাগড়াছড়ি সরকারি কলেজের প্রথম বর্ষের ছাত্র ক্লিনিক ত্রিপুরা (১৯)। তিনি আরও জানান, ছিনতাইয়ের সঙ্গে জড়িত চারজনের নামে মাটিরাঙ্গা থানায় মামলা করা হয়েছে। এর মধ্যে আটক দেবস্মিত খীসাকে সন্ধ্যায় আদালতে পাঠানো হয়েছে।

খাগড়াছড়ির পুলিশ সুপার মো. মজিদ আলী বিপিএম (সেবা) জানান, পুলিশ অপরাধীকে ধরেছে। এখানে অন্য কোনো পরিচয় বিবেচ্য নয়।