মেইন ম্যেনু

রিজভীকে কারাগারে পাঠানোর বিষয়ে যা বললেন খালেদা

বিএনপি নেতা রুহুল কবির রিজভী অসুস্থ এবং চিকিৎসকের পর্যবেক্ষণে আছেন দাবি করে তাকে জামিন না দিয়ে কারাগারে পাঠানো অমানবিক আচরণের বহিঃপ্রকাশ বলে মন্তব্য করেছেন দলটির চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া।

অবিলম্বে রিজভীর বিরুদ্ধে দায়ের করা মামলা প্রত্যাহার করে তার নিঃশর্ত মুক্তি দাবি করেছেন তিনি।

বৃহস্পতিবার দুপুরে গণমাধ্যমে পাঠানো এক বাণীতে তিনি এ দাবি করেন।

নাশকতার পাঁচ মামলায় বৃহস্পতিবার সকালে ঢাকার মহানগর দায়রা জজ আদালতে হাজির হয়ে আত্মসমর্পণ করেন বিএনপির জ্যেষ্ঠ যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী। আদালত তার জামিন আবেদন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

রিজভীকে জামিন না দিয়ে কারাগারে পাঠানোর তীব্র নিন্দা ও ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন বিএনপি চেয়ারপারসন। তিনি বলেন, ভোটারবিহীন অবৈধ ও অনৈতিক সরকার ক্ষমতার মোহে অন্ধ হয়ে আজ মানবিকতাবোধও হারিয়ে ফেলেছে।

বেগম জিয়া বলেন, তারা বিরোধী দলের নেতাকর্মীদের নির্মূল ও পর্যুদস্ত করতে রাষ্ট্রযন্ত্রকে ব্যবহার করে মিথ্যা মামলা দিয়ে দেশকে কারাগারে পরিণত করেছে।

তিনি বলেন, দলীয়করণের মাধ্যমে রাষ্ট্রের সব স্তম্ভকে তারা ধ্বংসের দ্বারপ্রান্তে নিয়ে গেছে। বিচার বিভাগও আজ স্বাধীনভাবে কাজ করতে পারছে না।

আদালতে রিজভীর জামিন নামঞ্জুর ন্যায়বিচার প্রতিফলিত হয়নি বলেও মন্তব্য করেন খালেদা জিয়া। তিনি বলেন, রিজভী একজন আইনজীবী ও আইনের প্রতি শ্রদ্ধাশীল একজন ব্যক্তি বলেই আদালতে জামিন প্রার্থনা করেছিলেন।

খালেদা জিয়া বলেন, মামলার এজাহারে তার নাম না থাকলেও সম্পূর্ণ রাজনৈতিক প্রতিহিংসায় পুলিশ তাকে মামলায় অন্তর্ভুক্ত করেছে। অসুস্থ রিজভীকে জামিনযোগ্য মামলায় জামিন না দিয়ে কারাগারে প্রেরণ শাসকগোষ্ঠীর ইচ্ছারই প্রতিফলন।