মেইন ম্যেনু

রিজার্ভ চুরিতে বাংলাদেশের অভিযোগ অস্বীকার সুইফটের

সুইফট কর্তৃপক্ষের অবহেলার কারণেই রিজার্ভের অর্থ চুরিতে হ্যাকাররা বাড়তি সুবিধা পেয়েছিল বলে বাংলাদেশের এমন অভিযোগের কথা অস্বীকার করেছে সুইফট।

ব্রাসেল ভিত্তিক এই প্রতিষ্ঠানটি বিবৃতি জানিয়েছে, ‘অন্যান্য ব্যবহারকারীর মতই বাংলাদেশ ব্যাংককেও সুইফটের সঙ্গে যুক্ত প্লাটফর্ম এবং সংশ্লিষ্ট পরিবেশের নিরাপত্তার দায়িত্ব সম্পূর্ণ নিজেদেরই নিতে হবে। প্রাথমিক পাসওয়ার্ড নিরাপত্তা থেকে শুরু করে অন্যান্য অভ্যন্তরীণ নিরাপত্তা ব্যবস্থাও এর অন্তর্ভূক্ত।’

প্রসঙ্গত, বাংলাদেশ ব্যাংকের রিজার্ভের ৮০০ কোটি টাকা চুরির ঘটনা তদন্ত করছে বাংলাদেশ পুলিশের অপরাধ তদন্ত বিভাগ। তদন্তের প্রধান ও সিআইডির অতিরিক্ত উপ-মহাপরিদর্শক শাহ আলম বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে বলেন, সুইফট কর্তৃপক্ষের অবহেলার কারণেই বাংলাদেশের কেন্দ্রীয় ব্যাংকের সার্ভারে প্রবেশ করতে সক্ষম হয় হ্যাকাররা।

বাংলাদেশ ব্যাংকের কর্মকর্তারাও মনে করেন, মার্কিন কেন্দ্রীয় ব্যাংক এবং সুইফটকে এই ঘটনার আংশিক দায়ভার নিতে হবে।

মূলত এসব অভিযোগের প্রেক্ষিতে সুইফটের পক্ষ থেকে এ বিবৃতি প্রকাশ করা হয়েছে।

সুইফটের বিবৃতিতে আরও বলা হয়েছে, ১০ মে (মঙ্গলবার) তারা এই বিষয় নিয়ে বাংলাদেশ ব্যাংক এবং যুক্তরাষ্ট্রের কেন্দ্রীয় ব্যাংকের সঙ্গে এক বৈঠকে বসবে। সেখানে নিরাপত্তা সংক্রান্ত বিষয়াদি এবং এসব ভিত্তিহীন অভিযোগ নিয়ে আলোচনা হবে।

সূত্র : রয়টার্স