মেইন ম্যেনু

রিজার্ভ চুরি : তদন্তের জন্য ইন্টারপোল টিম ঢাকায়

নিউইয়র্কে ফেডারেল রিজার্ভ থেকে বাংলাদেশ ব্যাংকের অর্থ চুরির ঘটনার তদন্তে ইন্টারপোলের ৬ সদস্যের একটি দল এখন ঢাকায় অবস্থান করছে।

বুধবার তারা সিআইডি কার্যালয়ের ল্যাবে রাসায়নিক পরীক্ষার কাজ শুরু করেছেন। আগামী কয়েক দিন তারা ল্যাবে সিআইডিকে বিভিন্ন পরীক্ষার কাজে সহযোগিতা করবেন।

বুধবার দুপুরে বিষয়টি নিশ্চিত করে সিআইডির বিশেষ পুলিশ সুপার আব্দুল্লাহেল বাকি বলেন, ‘ব্রেড মারডেনের নেতৃত্বে এ দলটি মঙ্গলবার ঢাকায় আসে। তারা রাসায়নিক পরীক্ষাসহ বেশ কিছু বিষয়ে আমাদের সহযোগিতা করবে।’

‘মূলত বাংলাদেশ ব্যাংকের কারা জড়িত, তাদের শনাক্ত করতে এসব পরীক্ষা করা হচ্ছে। তাদের সঙ্গে সিআইডির বিশেষজ্ঞ দলও কাজ করছে।’

গত ফেব্রুয়ারিতে নিউইয়র্কের ফেডারেল রিজার্ভে গচ্ছিত বাংলাদেশ ব্যাংকের রিজার্ভ থেকে ১০১ মিলিয়ন ডলার চুরি করে হ্যাকাররা। এর মধ্যে শ্রীলঙ্কায় ২০ মিলিয়ন ও ফিলিপাইনে ৮১ মিলিয়ন ডলার স্থানান্তর করা হয়।

প্রাপকের নামের বানান ভুলের কারণে শ্রীলঙ্কার একটি ব্যাংক ২০ মিলিয়ন ডলার আটকে দেয়। তবে ফিলিপাইনের রিজাল ব্যাংকের চারটি অ্যাকাউন্ট থেকে ৮১ মিলিয়ন ডলার উঠিয়ে নিতে সক্ষম হয় জড়িতরা।

অর্থ চুরির এ ঘটনায় পরে মতিঝিল থানায় মামলা করে বাংলাদেশ ব্যাংক কর্তৃপক্ষ। তদন্তে চুরির সঙ্গে বাংলাদেশ ব্যাংকের কর্মকর্তাদের জড়িত থাকার বিষয়ে বেশ কিছু তথ্য পাওয়া যায়। তবে কে বা কারা জড়িত, সে বিষয়ে তদন্ত চলছে। প্রযুক্তিগত, ফরেনসিক, ম্যানুয়ালি এবং জিজ্ঞাসাবাদে যে ধরনের তথ্য আসছে সেসব নিয়ে তদন্ত ও পরীক্ষা-নিরীক্ষার কাজ চলছে।