মেইন ম্যেনু

রিভিউ করবে বিজিএমইএ

ভবন ভাঙার আপিল রায়ের বিরুদ্ধে রিভিউ (পুনর্বিবেচনা) আবেদন করবে বাংলাদেশের পোশাক প্রস্তুতকারী ও রফতানিকারকদের সংগঠন বিজিএমইএ। আপিল বিভাগের রায় প্রকাশের পর তাৎক্ষণিক এক প্রতিক্রিয়ায় সংগঠনটির সহ-সভাপতি (অর্থ) মোহাম্মদ নাসির এ কথা জানিয়েছেন।

তিনি বলে, আপিলের রায় প্রকাশ হয়েছে শুনেছি। রায়ের পূর্ণাঙ্গ কপি (সার্টিফাইড) পেলে ৩০ দিনের মধ্যে রিভিউ করতে হয়। বিষয়টি নিয়ে আমাদের আইনজীবীর সঙ্গে আলোচনা করে রায়ের বিরুদ্ধে রিভিউ করবো। তারপর আদালত যা বলবেন তাই মেনে নেবো।

কারওয়ানবাজারে অবস্থিত ১৮ তলা অবৈধ ভবন ভেঙে মাটির সঙ্গে মিশিয়ে ফেলা সংক্রান্ত সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগের রায় প্রকাশ পেয়েছে।

মঙ্গলবার প্রধান বিচারপতি সুরেন্দ্র কুমার (এসকে) সিনহার নেতৃত্বে আপিল বিভাগের চার বিচারপতির স্বাক্ষরের পর সুপ্রিম কোর্টের ওয়েবসাইটে ৩৫ পৃষ্ঠার এ রায় প্রকাশ করা হয়।

বিষয়টি নিশ্চিত করে হাইকোর্টের অতিরিক্ত রেজিস্ট্রার (প্রশাসন ও বিচার) সাব্বির ফয়েজ বলেছেন, রায়ে ৯০ দিনের মধ্যে এই ভবন ভাঙতে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। এখন শুধু আপিল বিভাগের রায়ের বিরুদ্ধে রিভিউ করতে পারবে কর্তৃপক্ষ। আইন অনুযায়ী রায়ের পূর্ণাঙ্গ কপি (সার্টিফাইড) হাতে পাওয়ার ৩০ দিনের মধ্যে রিভিউ (পুনর্বিবেচনা) আবেদন করতে হয়।

রায়ের অনুলিপি প্রকাশের পর আইনজীবী মনজিল মোরসেদ জানান, রায়ে বলা হয়, ভবন ভাঙার সব ব্যয়ভার বিজিএমইএ কর্তৃপক্ষকেই বহন করতে হবে। এছাড়া ওই ভবন নির্মাণের ক্ষেত্রে ফৌজদারি অপরাধের বিষয়টি তদন্ত করে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণেরও নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

একইসঙ্গে ভবনের জায়গাসহ রাজধানী কারওয়ানবাজারের বেগুনবাড়ি-হাতিরঝিল প্রকল্প মূল পরিকল্পনা অনুযায়ী বাস্তবায়ন করতে হবে বলেও রায়ে উল্লেখ করেছেন আদালত।