মেইন ম্যেনু

রিসা হত্যায় অভিযুক্ত ওবায়দুল গ্রেপ্তার

রাজধানীর উইলস্ লিটল ফ্লাওয়ার স্কুল অ্যান্ড কলেজের অষ্টম শ্রেণির ছাত্রী সুরাইয়া আক্তার রিশার সন্দেহভাজন হত্যাকারী ওবায়দুল খানকে গ্রেফতার করেছে র‌্যাব।

আজ (বুধবার) ভোরে নীলফামারী থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে বলে ঢাকা মহানগর পুলিশের (ডিএমপি) রমনা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মশিউর রহমান নিশ্চিত করেছেন।

তিনি জানান, রমনা পুলিশ নীলফামারীতে গিয়ে রাতভর তল্লাশি করে। নীলফামারী জেলা পুলিশের সহযোগিতায় আজ ভোর রাতে রমনা পুলিশের একটি টিম নীলফামারী ডোমার থেকে ঘাতক ওবায়দুলকে গ্রেফতার করে। এর আগে রমনা থানার তার বিরুদ্ধে একটি মামলা দায়ের করা হয়েছিল।

উল্লেখ্য, গত বুধবার (২৪ আগস্ট) দুপুরে ঢাকার কাকরাইলে স্কুলের সামনে ফুটওভার ব্রিজের উপরে রিশার পেট ও হাতে ছুরি মেরে পালিয়ে যায় টেইলার্স কর্মচারী ‘বখাটে যুবক’ ওবায়দুল রহমান। পরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনদিন পর গত রোববার মারা যান সুরাইয়া আক্তার রিশা।

রিশা উইলস লিটল ফ্লাওয়ার স্কুলের অষ্টম শ্রেণিতে পড়ত। তার বাবা মো. রমজান হোসেন পুরান ঢাকার সিদ্দিকবাজার এলাকার ক্যাবল (ডিশ) ব্যবসায়ী।

পরিবারের অভিযোগ, ৮/৯ মাস আগে ইস্টার্ন মল্লিকার বৈশাখী টেইলার্সে একটি জামা বানাতে দিয়েছিলেন রিশা। তখন থেকে যোগাযোগের জন্য দেয়া মোবাইল ফোন নম্বরে রিশাকে বিরক্ত করছিল ওবায়দুল। পরিবারের অভিযোগ, ওবায়দুলই রিশাকে ছুরিকাঘাত করেছে।

এদিকে রিশা হত্যাকাণ্ডের বিচার দাবিতে গত দুদিন ধরে ‘রিশা হত্যার বিচার চাই, উই ওয়ান্ট জাস্টিস’ স্লোগানে সরব আন্দোলন করে আসছিল প্রতিষ্ঠানটির শিক্ষার্থীরা।