মেইন ম্যেনু

রুনির রেকর্ড, ইংল্যান্ডের গোলবন্যা

ব্রিটিশ মিডিয়া এখনই শুরু করে দিয়েছে ইংলিশ কোচ রয় হজসনের সমালোচনা। কারণ কী? ৬-০ গোলের বিশাল ব্যবধানে জয়ের পরও সমালোচনা শুনতে হবে কেন হজসনকে! কারণটা আর কিছুই নয়, খেলার ৫৮ মিনিটের সময় কেন ওয়েন রুনিকে তুলে নেওয়া হলো- এ জন্য।

৫৮ মিনিটে যদি ইংলিশ অধিনায়ককে তুলে না নেওয়া হতো, তাহলে কিংবদন্তী স্যার ববি চার্লটনকেও ছাড়িয়ে যেতে পারতেন তিনি। চার্লটনকে ছাড়িয়ে যাওয়ার সুযোগ হয়তো আরও পাবেন, তবে শনিবার রাতে কিংবদন্তী ওই তারকার রেকর্ড স্পর্শ করে ফেললেন রুনি। ইংল্যান্ডের হয়ে সর্বোচ্চ ৪৯ গোলের রেকর্ডের একমাত্র মালিক ছিলেন চার্লটন। এবার এই জায়গাটা ভাগাভাগি করে নিতে হবে রুনির সঙ্গে।

ইউরো বাছাই পর্বে শনিবার রাতে সান মারিনোর মাঠে গিয়ে স্বাগতিকদের ৬-০ গোলের বন্যায় ভাসিয়েছে ইংল্যান্ড। রুনি করেছেন এক গোল। জোড়া গোল করেছেন থ্রি ওয়ালকট। একটি করে গোল করেছেন হ্যরি কেন এবং রস বার্কলে। একটি গোল হয়েছে আত্মঘাতি। ৩০ মিনিটে সান মারিনোর ক্রিশ্চিয়ান ব্রোলি নিজেদের জালেই বল জড়িয়ে দেন।

১৩ মিনিটে পেনাল্টি থেকে ইংলিশদের গোলের সূচনা করেন রুনি। ৩০ মিনিটে আত্মঘাতি গোলে ব্যবধান ২-০ করেন ব্রোলি। ৪৬ মিনিটে ৩-০ করেন রস বার্কলে। ৩-০ ব্যবধানেই শেষ হয় প্রথমার্ধ।

খেলার ৬৮ মিনিটে ব্যবধান ৪-০ করেন থিও ওয়ালকট। ৭৭ মিনিটে পঞ্চম গোল দেন হ্যারি কেন। এর তিন মিনিট পর আবারও গোল। এবার গোলদাতা ওয়ালকট এবং ব্যবধান দাঁড়িয়ে যায় ৬-০।

সান মারিনোর বিপক্ষে এই জয়ে ইউরোর চূড়ান্ত পর্ব নিশ্চিত করে ফেলেছে ইংল্যান্ড। ৭ ম্যাচের সব কটিতে জয়ে ২১ পয়েন্ট নিয়ে ‘ই’ গ্রুপে তাদের অবস্থান শীর্ষে। ১৫ পয়েন্ট নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে সুইজারল্যান্ড।



« (পূর্বের সংবাদ)