মেইন ম্যেনু

‘রেলের উন্নয়নে বর্তমান সরকার ব্যাপক পদক্ষেপ নিয়েছে’

মাগুরা প্রতিনিধি : রেল মন্ত্রী মুজিবুল হক এমপি বলেছেন, বিএনপি সরকারের আমলে রেলওয়ে ছিল অত্যন্ত অবহেলিত। কোন নতুন রেল লাইন নির্মাণ করা হয়নি বা সংস্কার করাও হয়নি। আওয়ামীলীগ সরকার ক্ষামতায় আসার পর বাংলাদেশ রেলওয়ের অভূতপূর্ব উন্নয়ন হয়েছে। রেলের উন্নয়নে বর্তমান সরকার ব্যাপক পদক্ষেপ নিয়েছে। শনিবার সন্ধ্যা ৬টায় মাগুরা সদর উপজেলার রামনগর হাইস্কুল মাঠে জেলা আওয়ামী লীগ আয়োজিত জনসভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন।

মন্ত্রী আরো বলেন, রেল পথ একটি আরামদায়ক ও সাশ্রয়ী ভ্রমণ ব্যবস্থা। এ কারনে প্রধানমন্ত্রী অগ্রাধিকার ভিত্তিতে রেল ওয়ের উন্নয়নে চলতি অর্থ বছরে ১৬ হাজার ১৬৫ কোটি বরাদ্দ প্রদান করেছেন। তারই অংশ হিসেবে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে অচিরেই ফরিদপুরের মধুখালি হয়ে মাগুরা পর্যন্ত ২৩ কিলোমিটার রেল পথ নির্মাণ করা হবে।

তিনি দেশের বিভিন্ন জেলায় নতুন রেল লাইন নির্মাণের চিত্র তুলে ধরে আরো বলেন, ২০১৪ সালের নির্বাচনের আগে বিএনপি সারাদেশে জালাও-পোড়াও আন্দোলন শুরু করে। কিন্তু জনগণ তা সমর্থন করে নি। দেশের উন্নয়নের ধারাবাহিকতা রক্ষার জন্য আগামী ২০১৯ সালের নির্বাচনে আওয়ামীলীগকে ক্ষমতায় আনার আহবান জানান।

সভায় জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি তানজেল হোসেন খানের সভাপতিত্বে প্রধান বক্তা ছিলেন বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আব্দুর রহমান এমপি। বক্তব্য রাখেন যুব ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী ড. বীরেন শিকদার এমপি, মাগুরা-১ আসনের এমপি মেজর জেনারেল (অবঃ) এটিএম আব্দুল ওয়াহ্হাব, সংরক্ষিত মহিলা এমপি কামরুল লায়লা জলি, জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক ও জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান পঙ্কজ কুন্ডু, প্রধানমন্ত্রীর সহকারি একান্ত সচিব এ্যাডভোকেট সাইফুজ্জামান শিখর, সদর উপজেলা চেয়ারম্যান রোস্তম আলী, জেলা আওয়ামীলীগের সহ-সভাপতি মুন্সি রেজাউল হক, গোলাম মওলা, জেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এ্যাডভোকেট শফিকুজ্জামান বাচ্চু প্রমুখ।

এর আগে মন্ত্রী মধুখালি হয়ে কামারখালী-মাগুরা প্রস্তাবিত রেল লাইনসহ সদর উপজেলার ঠাকুরবাড়িতে রেল স্টেশনের স্থাপনের জন্য এলাকা পরিদর্শন করেন।

উল্লেখ্য, প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা গত ২১ মার্চ বীর মুক্তিযোদ্ধা আছাদুজ্জামান স্টেডিয়ামে জেলা আওয়ামী লীগ আয়োজিত জনসভায় মাগুরার উপর দিয়ে রেল লাইন নির্মাণের ঘোষনা দেন। তার আলোকে রেল মন্ত্রনালয় কর্তৃক কামারখালী হয়ে মাগুরার উপর দিয়ে রেল লাইন নির্মাণ হবে। সেই সাথে সদর উপজেলার রামনগর এলাকায় রেল স্টেশন স্থাপন করা হবে। প্রধানমন্ত্রীর ঘোষনার পর, জেলায় রেল লাইন স্থপনে প্রধানমন্ত্রীর সহকারি একান্ত সবিচ সাইফুজ্জামান শিখর ঐকান্তিক প্রচেষ্টা চালান। যার ফলে মাগুরার মানুষের দীর্ঘ দিনের স্বপ্ন পূরণ হতে যাচ্ছে।






মন্তব্য চালু নেই