মেইন ম্যেনু

রোজায় কোষ্ঠকাঠিন্যের সমস্যাকে চিরবিদায় বলুন ৪টি উপায়ে

কোষ্ঠকাঠিন্য একটি কষ্টদায়ক এবং অস্বস্তিকর শারীরিক সমস্যা। প্রথম দিকে একে গুরুত্ব দেওয়া না হলে পরবর্তিতে এটি পাইলস অথবা কোলন ক্যান্সারের মত মারাত্নক রোগ সৃষ্টি করতে পারে। সাধারণত অপুষ্টিকর খাবার, অস্বাস্থ্যকর খাদ্যাভ্যাস ইত্যাদি কারণে কোষ্ঠকাঠিন্য হয়ে থাকে।

রোজার সময় অতিরিক্ত ভাজাপোড়া, খাদ্যাভ্যাসের পরিবর্তনের কারণে কোষ্ঠকাঠিন্য সমস্যার সম্মুখীন হতে হয়। এইসময় হুট করে কোন ওষুধ খাওয়া স্বাস্থ্যের জন্য কিছুটা ঝুকিপূর্ণ। তাই কোষ্ঠকাঠিন্য সমস্যাকে দূর করুন ঘরোয়া কিছু উপায়ে।

১। বেকিং সোডা

এক গ্লাস গরম পানিতে দুই টেবিল চামচ লেবুর রস, এক টেবিল চামচ বেকিং সোডা ভাল করে মিশিয়ে নিন। এটি দেহের টক্সিন এবং ক্ষতিকর পদার্থ দূর করে দেয়। লেবুর রস এবং বেকিং সোডার মিশ্রণ আপনার পেটের গ্যাসের মাত্রা নিয়ন্ত্রণ করে অ্যাসিডিটি এবং কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করে দেয়। এটি সেহেরি এবং ইফতারিতে এক গ্লাস করে পান করতে পারেন।

২। মৌরি

এক কাপ মৌরি তাওয়ায় হালকা ভেজে নিন। তারপর এটি ব্লেন্ডারে ব্লেন্ড করে গুঁড়ো করে নিন। কুসুম গরম পানিতে আধা চা চামচ মৌরির গুঁড়ো মিশিয়ে নিন। এটি দিনে দুইবার অথবা একবার পান করুন। মৌরি বদহজম, পেট ফাঁপা, কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করতে বেশ কার্যকর।

৩। অলিভ অয়েল

এক টেবিল চামচ অলিভ অয়েল এবং এক চা চামচ লেবুর রস ভাল করে মিশিয়ে নিন। অলিভ অয়েল এবং লেবুর রসের মিশ্রণ খালি পেটে বেশি কার্যকর। ইফতারির শুরুতে এই মিশ্রণটি খেয়ে নিতে পারেন।

৪। মধু

মধুর ল্যাক্সাটিভ উপাদান পেট নরম করতে সাহায্য করে যা কোষ্ঠকাঠিন্য দূর করতে সাহায্য করে। দুই টেবিল চামচ মধু দিনে তিনবার গ্রহণ করুন। এছাড়া ভাল ফল পেতে এক টেবিল চামচ মধু, লেবুর রস এক গ্লাস গরম পানিতে মিশিয়ে খালি পেটে পান করতে পারেন।

এই উপায়গুলো রোজায় আপনার কোষ্ঠকাঠিন্য সমস্যা দূর করে আপনাকে সুস্থ রাখবে।