মেইন ম্যেনু

রোজা রাখতে অক্ষম ব্যক্তির করণীয়

রমজান মাসে যারা রোজা পালনে অক্ষম। অতিশয় পীড়িত, বয়োবৃদ্ধ, এমনকি দৈহিক দুর্বলতার কারণে রোজা রাখা অনেক কষ্ট সাধ্য ব্যাপার বা প্রাণহানি ঘটতে পারে। তাদের রোজার ব্যাপারে আল্লাহ তাআলা কুরআনে উল্লেখ করেন, ‘ (যারা রোজা রাখতে অক্ষম) তারা এর পরিবর্তে একজন মিসকিনকে খাদ্য দান করবে। (সুরা বাক্বারা : আয়াত ১৮৪) অক্ষম ব্যক্তির রোজার করণীয় তুলে ধরা হলো-

অক্ষম ব্যক্তির রোজা
যে বা যারা রোজা রাখতে অক্ষম। অতিশয় বৃদ্ধ বা গুরুত্বর অসুস্থ ব্যক্তি, সুস্থ হওয়ার তেমন কোনো সম্ভাবনা নেই; অথবা রোজা রাখলে প্রাণহানি ঘটতে পারে, এমন ব্যক্তির রোজা রাখার পরিবর্তে ফিদইয়া আদায় করবে।

অক্ষম ব্যক্তির ফিদইয়া আদায়ের নিয়ম
ইসলামি শরিয়তে ফিদইয়া হলো- একটি করে ‘সদকাতুল ফিতর’ বা তার সমপরিমাণ অর্থ একজন মিসকিনকে দান করা। অর্থাৎ ১ কেজি ৬৫০ গ্রাম আটা/গম বা তার সমপরিমাণ মূল্য গরিবদের দান করাই হলো রোজার ‘ফিদইয়া’। অথবা একজন ফকির বা মিসকিনকে দুই বেলা পেট পুরে খাওয়ানো।

লক্ষণীয়-
এ অক্ষম বা অসুস্থ ব্যক্তি যদি পরবর্তীতে সুস্থ হয়ে যায় তবে ঐ ব্যক্তি নিজেই রোজার কাযা আদায় করে নিবে।

ফিদইয়া আদায় না করে মারা গেলে-
অসুস্থ বা রোজা রাখতে অক্ষম ব্যক্তি যদি ফিদইয়া আদায় না করে মারা যায় এবং মৃত ব্যক্তি কর্তৃক ফিদইয়া আদায়ের ব্যাপারে অসিয়ত থাকে, তবে তার পরিত্যক্ত সম্পদ থেকে ফিদইয়া আদায় করা আবশ্যক কর্তব্য; অসিয়ত না থাকলে ফিদইয়া আদায় করা মুস্তাহাব।

আল্লাহ তাআলা মুসলিম উম্মাহকে অক্ষম ব্যক্তির ফিদইয়া আদায় করে কুরআনের বিধানের বাস্তবায়ন করার তাওফিক দান করুন। আমিন।