মেইন ম্যেনু

রোহিঙ্গাদের জন্য ১২ টন ত্রাণ নিয়ে এসেছে মালয়েশিয়া সরকার

রোহিঙ্গাদের জন্য ১২ টন ত্রাণ নিয়ে এসেছে মালয়েশিয়া সরকার। একটি সামরিক উড়োজাহাজে করে তারা ত্রাণ নিয়ে এসেছে।

শনিবার বিকেল সাড়ে ৫টার দিকে দেশটির একটি সামরিক এয়ারবাস চট্টগ্রামের শাহ আমানত বিমানবন্দরে পৌঁছায়।

মালয়েশিয়ার সামরিক বাহিনীর জয়েন্ট ফোর্স হেডকোয়ার্টার্সের চিফ অব স্টাফ ও ভাইস অ্যাডমিরাল দাতো পালোয়ান হাজি মোহাম্মদ আদিব বিকেলে চট্টগ্রামের জেলা প্রশাসক জিল্লুর রহমানের হাতে ত্রাণসামগী তুলে দেন। এ সময় চট্টগ্রামের অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার শঙ্কর রঞ্জন সাহা, বিমানবাহিনীর চট্টগ্রামের এয়ার কমোডর মোহাম্মদ মোরশেদ হাসান সিদ্দিকী, শাহ আমানত বিমানবন্দরের ব্যবস্থাপক ও এয়ার কমোডর রিয়াজুল কবির উপস্থিত ছিলেন।

ত্রাণসামগ্রীর মধ্যে চাল, খেঁজুর, বিস্কুট, তোয়ালে ও প্রসাধনসামগ্রী আছে।

হাজি মোহাম্মদ আদিব সাংবাদিকদের জানান, তাঁরা মালয়েশিয়া সরকারের পক্ষ থেকে বাংলাদেশে আশ্রয় নেওয়া রোহিঙ্গাদের জন্য ত্রাণের প্রথম চালান নিয়ে এসেছেন। রোববার সরকারের উচ্চপর্যায়ের কর্মকর্তাদের সঙ্গে তাঁদের বৈঠক হবে। তারা রোহিঙ্গাদের জন্য চিকিৎসক, চিকিৎসাসামগ্রী, নিত্যপ্রয়োজনীয় সামগ্রী পাঠাতে প্রস্তুত আছেন।

জেলা প্রশাসক জিল্লুর রহমান সাংবাদিকদের জানান, মালয়েশিয়া সরকারের পক্ষ থেকে যেসব ত্রাণ এসেছে সেগুলো বিভাগীয় কমিশনারের মাধ্যমে কাল রোববার সীমান্ত এলাকায় অবস্থানরত রোহিঙ্গাদের কাছে বিতরণ করা হবে।






মন্তব্য চালু নেই