মেইন ম্যেনু

রৌমারীতে দুর্বৃত্তের হামলায় নৌকার মাঝি গুরুতর আহত

কুড়িগ্রাম প্রতিনিধি : কুড়িগ্রামের রৌমারীতে মোহাম্মদ আলী (২৭) নামে এক নৌকার মাঝিকে দা’ দিয়ে এলোপাথারি কুপিয়ে জখম করেছে দুর্বৃত্তরা। চিৎকার শুনে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে রৌমারী উপজেলা স্বাস্থ্যকমপ্লেক্সে ভর্তি করেন। পরে আশঙ্কাজনক অবস্থায় রাতেই তাকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। এ ঘটনায় এ পর্যন্ত কোনো মামলা হয়নি।

জানা যায়,রোববার দিবাগত রাত ১০টার দিকে ঘটনাটি ঘটেছে উপজেলার যাদুরচর ইউনিয়নের কর্ত্তিমারী- চিলমারী নৌকা ঘাটের কাইশার চর নামক এলাকায়। আহত মোহাম্মদ আলীর বাড়ী পাশের চিলমারী উপজেলার অষ্টমীর চর ইউনিয়নের গোয়াইলাপাড়া গ্রামে। এ সময় তার সঙ্গী একই এলাকার জমশের আলীর পুত্র জামাল হোসেন রহস্যজনক ভাবে নিখোজ রয়েছে।

পত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা যায়, নৌকা পারাপারের কাজ শেষ করে রাতে বাড়ী ফেরার পথে পাশের উপজেলা চিলমারী’র অষ্টমীর চর ইউনিয়নের দুর্গম এলাকা কাইসারচর নামক এলাকায় পৌছলে দুর্বৃত্তের আক্রমণের স্বীকার হন মোহাম্মাদ আলী ও সহযোগি একই এলাকার জামাল হোসেন। পিছন দিক থেকে হঠাৎ দুর্বৃত্তরা মোহাম্মদ আলীকে ওপর আক্রমণ চালায়। এতে তার শরীরের বিভিন্ন অংশ জখম হয়।

রৌমারী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মাহফুজুর রহমান সরকার মুকুল জানান, আহতের ঘারের পিছনসহ বিভিন্ন জায়গায় গুরুতর জখমের চিহ্ন রয়েছে। অতিরিক্ত রক্তক্ষরণ হওয়ায় তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ময়মনসিংহ মেডিকেলে রেফার্ড করা হয়েছে।

ঢুষমারা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মাসুদ পারভেজ জানান, এ ঘটনায় এখানো কেউ অভিযোগ করেনি। অভিযোগ পেলে তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া হবে।