মেইন ম্যেনু

সাবেক পাক নেতার স্বীকারুক্তি

‘লাদেন ছিলেন আমাদের নায়ক’

সাবেক সামরিক শাসক পারভেজ মোশাররফ জানিয়েছেন, নব্বই দশকে কাশ্মীরের জঙ্গি গোষ্ঠী লস্কর ই তৈয়বা এবং আশি দশকের শেষ নাগাদ আফগানিস্তানে তালেবান গোষ্ঠীকে প্রশিক্ষণ ও সমর্থন দিয়েছিল পাকিস্তান।

রোববার স্থানীয় সংবাদ মাধ্যম ‘দুনিয়া নিউজ’কে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে এসব চাঞ্চল্যকর তথ্য প্রকাশ করেছেন সাবেক সেনাপ্রধান পারভেজ মোশাররফ। তিনি বলেন,‘নব্বই দশকে অধিকৃত কাশ্মীরে ভারত বিরোধী সংগ্রাম শুরু হলে লস্কর ই তৈকয়বাসহ আরো ১১-১২টি সংগঠন গঠিত হয়েছিল। আমরা তখন কাশ্মীরের স্বাধীনতা লড়াইয়ে তাদের সমর্থন করেছি এবং তাদের সামরিক প্রশিক্ষণও দিয়েছি।’

এসময় জঙ্গি গোষ্ঠী জামাত উল দাওয়া নেতা হাফিজ সাইদ এবং লস্কর ই তৈয়বা গোষ্ঠীর নেতা জাকিউর রহমানের সম্পর্কে জানতে চাইলে সাবেক ওই পাক প্রেসিডেন্ট বলেছেন,‘ওই সময় হাফিজ সাইদ এবং লাখভির মত কাশ্মীরী মুক্তিযোদ্ধারা ছিল আমাদের হিরো। পরে এসব ধর্মীয় জঙ্গিবাদ সন্ত্রাসবাদের রুপ নেয়। এখন তারা (পাকিস্তানি জঙ্গিরা) এখানে নিজেদের লোকজনকেই হত্যা করছে। এসব লোকদের থামানো উচিত।’

১৯৭৯ সালে পাকিস্তান ধর্মীয় জঙ্গিবাদকেও সমর্থন করেছিল এবং তারা আফগানিস্তানের জঙ্গি গোষ্ঠী তালেবান যোদ্ধাদের সামরিক প্রশিক্ষণ দিয়েছিল বলেও তিনি স্বীকার করেছেন। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন,‘সামরিক প্রশিক্ষণ শেষে তালেবান যোদ্ধাদের রুশ সেনাদের বিরুদ্ধে লড়াই করার জন্য দেশে ফেরত পাঠানো হত। তখন হাক্কানি, ওসামা বিন লাদেন ও জাওয়াহিরির মত নেতারা ছিলেন আমাদের নায়ক। পরে তারা খলনায়কে পরিনত হন।’ পরে গোটা পরিস্থিতি কিভাবে বদলে গেল এ দেশের লোকজনকে তা উপলব্ধি করতে হবে বলেও তিনি ওই সাক্ষাৎকারে উল্লেখ করেছেন।