মেইন ম্যেনু

লুকিয়ে মদ্যপানে সন্তানদের ছাপিয়ে যাচ্ছেন মায়েরা

সন্তান নাকি মা- লুকিয়ে মদ্যপানে এগিয়ে কে? মনে হতে পারে বাবা-মাকে লুকিয়ে উঠতি বয়সের ছেলেমেয়েরাই হয়ত লুকিয়ে মদ্যপান বেশী করে৷ কিন্তু সাম্প্রতিক এক সমীক্ষা এই ভাবনাকে ভুল প্রমাণ করছে৷ ব্রিটেনের মাঝবয়সি মহিলাদের নিয়ে এই সমীক্ষা জানাচ্ছে, ছেলে মেয়ে বড় হয়ে গেলে, মায়েরাই বরং গোপনে মদ্যপানের পরিমাণ বাড়িয়ে দেন৷

৪৫-এর উপরে বয়স, এরকম ৫০০ জন মায়ের মধ্যে ২৮ শতাংশই কবুল করেছেন সন্তান বাইরে বেরনোর পর তাঁদের মদ্যপানের পরিমাণ বেড়েছে৷ তবে কি এই মায়েরা মদ্যপ হয়ে পড়ছেন? সমীক্ষা জানাচ্ছে, তাঁরা নেশার মাত্রা রেখেই মদ্যপান করেন৷ কিন্তু যেহেতু অ্যালকোহলের পরিমাণ বেড়েছে এবং মদ্যপানের দিনও বেড়েছে, তাই মোট হিসেবে তরুণদেরও ছাপিয়ে যাচ্ছেন তাঁরা৷ এই সমীক্ষায় আরও জানা গিয়েছে, ব্রিটেনেও মধ্যবয়সী মহিলারা স্বাস্থ্য নিয়ে বিন্দুমাত্রও সচেতন নন৷ মদ্যপানের পরিমাণ যাঁরা বাড়িয়ে দিয়েছেন তাঁদের মধ্যে ৯৫ শতাংশই শারীরিক কোনও ক্ষতি খেয়ালই করেন না৷ বরং ১৮-২৪ বছর বয়সীরা মদ্যপান ও শরীরের উপর তার প্রভাব নিয়ে বেশি সচেতন৷

ষাটের উপর যাঁদের বয়স, তাঁদের মধ্যেও মদে আসক্ত মহিলাদের সংখ্যা বিগত পাঁচ বছরে বেড়েছে উল্লেখযোগ্যভাবে৷ এই বয়সি মহিলাদের প্রতি দশ জনে একজন আসক্ত৷ ‘ইকোনমিক কো অপারেশন এবং ডেভলেপমেন্ট’ সংস্থার মতে, সারা দুনিয়ায় মদ্যপানে নিরিখে ব্রিটেনের মহিলারাই শীর্ষে রয়েছেন৷কলকাতা২৪