মেইন ম্যেনু

লুলিয়াকেই বিয়ে করছেন সালমান!

প্রায় এক বছরেরও বেশি সময় ধরে লুলিয়া ভন্তুর এবং সালমানের বিয়ে নিয়ে জল্পনা চলছে। এবার নাকি বিয়ের দিনক্ষণ জানিয়ে দিয়েছেন সালমান। বলিউডে জোর খবর, লুলিয়াকেই বিয়ে করছেন সালমান। কিন্তু কবে?

‘সালমান খান’-এর সময়টা বেশ ভালই যাচ্ছে। ‘সুলতান’ ভেঙে দিয়েছে বলিউডের বহু রেকর্ড। এই বুড়ো বয়সেও তিনি টেক্কা দিচ্ছেন অর্ধেক বয়সী ছোকরা-নায়কদের সঙ্গে। প্রায় মেয়ের বয়সী নায়িকাদের পাশেও তাঁকে দিব্যি মানিয়ে যাচ্ছে। ধুমধাম করে বোনের বিয়ে, মামা হওয়া সবই হয়েছে শুধু তাঁর নিজের বিয়েটা সেই কবে থেকেই ‘ব্যাকফুটে’ পড়ে রয়েছে।

এই নিয়ে সহস্রবার তাঁকে প্রশ্ন করা হয়েছে এবং প্রত্যেকবারই তিনি ধোঁয়াশাময় উত্তর দিয়েছেন। কখনও বলেছেন এখন বিয়ের পরিকল্পনা নেই, কখনও বলেছেন বিয়ে করতে চান কিন্তু পাত্রী নেই। এমন হাজারো কথার মধ্যে কিন্তু গত কয়েক বছর ধরেই মধুর সম্পর্ক তৈরি করেছেন রোমানিয়ান টেলিভিশন স্টার লুলিয়া ভন্তুর-এর সঙ্গে। লুলিয়া সালমানের গার্লফ্রেন্ড হিসেবে সর্বত্র পরিচিত হলেও তাঁকে বিয়ে করবেন বলে সালমান কোনও অফিসিয়াল স্টেটমেন্ট দেননি। যদিও মাস কয়েক হল লুলিয়া সালমানের বাড়িতে, তাঁর আতিথ্যেই রয়েছেন। কখনও মুম্বইয়ের রেস্তোরাঁয় আবার কখনও কাছেপিঠে উইকএন্ড ট্রিপেও দু’জনকে একসঙ্গে যেতে দেখা গিয়েছে।

তবু বিয়ের প্রসঙ্গ উঠলেই এড়িয়ে গিয়েছেন সালমান। কিন্তু মুম্বইয়ের একটি গসিপ ম্যাগাজিনের খবর, অতি সম্প্রতি হলিউড তারকা ‘উইল স্মিথ’-এর জন্য একটি প্রাইভেট পার্টির আয়োজন করেছিলেন সালমান। সেই পার্টিতেই ঘনিষ্ঠজনেদের সামনে তিনি নাকি জানিয়েছেন যে লুলিয়াকেই বিয়ে করতে চলেছেন তিনি। আগামী ১৮ নভেম্বর, সালমানের বাবা-মায়ের ৫২তম বিবাহবার্ষিকী। ওই দিনেই নাকি বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হতে চান সালমান বলে মুম্বইয়ের গসিপ ম্যাগাজিন সূত্রে জানা গেছে।

ওই গসিপ ম্যাগাজিনের বক্তব্য, সম্প্রতি লুলিয়ার ভিসা নিয়ে যে সমস্যা দেখা দিয়েছে, সেই কারণেই হঠাৎ করে বিয়ের সিদ্ধান্ত নিচ্ছেন সালমান। শোনা যাচ্ছে, এই নভেম্বরেই লুলিয়ার ভিসার মেয়াদ শেষ হয়ে যাচ্ছে। অর্থাৎ তার পরে লুলিয়াকে তাঁর দেশে ফিরে যেতে হবে। ভিসার জন্য রি-অ্যাপ্লাই করলেও আবার ভারতে ফিরতে কমপক্ষে তিনমাস সময় লাগবে লুলিয়ার। তাই কি হঠাৎ বিয়ের এত তাড়া? কারণ যাই হোক না কেন, বলিউডের ‘সুলতান’ বিয়ে করলে খুশি হবেন সবাই।