মেইন ম্যেনু

লেবু পানির ১৯ উপকারিতা

লেবু সাধারণত আমরা খাবারের স্বাদ বাড়াতে খেয়ে থাকি। তবে এটি মুখরোচক খাবার ছাড়াও এতে আছে ভিটামিন সি এবং খনিজ উপাদানসহ আরো নানা উপকরণ। এছাড়া রোজ সকালে লেবু পানি আপনার ওজন কমাতেও সাহায্য করে। এই ঘরে তৈরি পানীয় শরীর থেকে বিষাক্ত পদার্থ দূর করে, কিডনি ভালো রাখে এবং হজমে সাহায্য করে। এসব ছাড়াও লেবু পানির রয়েছে আরো অনেক উপকারিতা। সে সব গুনাবলী সম্পর্কে জেনে নেয়া যাক।

১. লেমন অর্থাৎ পাকা লেবুতে থাকে ইলেকট্রোলাইটস ( যেমন পটাশিয়াম, ম্যাগনেশিয়াম ইত্যাদি)। সকাল সকাল লেবু পানি আপনাকে হাইড্রেট করে, শরীরে যোগান দেয় এইসব প্রয়োজনীয় উপাদান যা দেহের পানিশূন্যতা দূর করে। হাড়রে জয়েন্ট ও মাসল পেইন কমায় দ্রুত।

২. ঘন ঘন কৃমির আক্রমণে ক্লান্ত? প্রতিদিন এক গ্লাস লেবু পানি পান করুন আর কৃমির সাথে যুদ্ধ জয় করুন।

৩. অন্য যে কোন খাবারের চাইতে লেবু পানির ব্যবহারে লিভার অনেক বেশি দেহের জন্য প্রয়োজনীয় এনজাইম তৈরি করতে পারে। লেবু পানি টক্সিক উপাদান দূর করে লিভারকে পরিষ্কার রাখে।

৪. মুখের দুর্গন্ধ দূর করে।

৫. লেবুপানি আমাদের দেহের মেটাবোলিজম বৃদ্ধি করে ও লেবুর অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট উপাদান দেহের রোগ-প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি করে।

৬. আপনার নার্ভাস সিস্টেমে দারুণ কাজ করে। সকাল সকাল লেবুর পটাশিয়াম আপনার বিষণ্ণতা ও উৎকণ্ঠা দূর করতে সহায়ক।

৭. লেবু পানি শরীরের রক্তবাহী ধমনী ও শিরাগুলোকে পরিষ্কার রাখে।

৮. উচ্চ রক্তচাপ কমাতে সহায়তা করে।

৯. শরীরের পি এইচ লেভেল উন্নত করে। পি এইচ লেভেল যত উন্নত, শরীর রোগের সাথে লড়াই করতে তত সক্ষম।

১০. ইউরিক এসিড সমস্যা দূর করতে সহায়ক।

১১. বুক জ্বালাপোড়া দূর করে। যাদের এই সমস্যা আছে রোজ আধা কাপ পানির সঙ্গে ১ চা চামচ লেবুর রস মিশিয়ে পান করুন।

১২. কিডনী ও প্যানক্রিয়াসের পাথর দূর করতে অসাধারণ কার্যকর।

১৩. ওজন দ্রুত কমাতে সহায়তা করে। লেবুতে থাকে পেকটিন ফাইবার যা ক্ষুধা নিয়ন্ত্রণ করে।

১৪. দাঁতের সমস্যা প্রতিরোধে সহায়তা করে। দাঁত ব্যথা কমায়।

১৫. ক্যান্সারের সাথে লড়াই করে, ক্যান্সার প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়।

১৬. মেটাবলিজম বা হজমশক্তি বাড়ায়। এতে ওজন কমাতেও প্রভাব পড়ে।

১৭. লেবু পানি ক্যান্সার প্রতিরোধ করে। লেবুতে আছে এলকালাইন উপাদান এবং বিজ্ঞানীরা বলেছেন ক্যান্সারের কোষ এলকালাইন উপাদান এর সাথে থাকতে পারে না।

১৮. এটি আমাদের দেহের প্রদাহ দূর করে, গলা ব্যথা, টনসিলের সমস্যা, শ্বাসযন্ত্রের ইনফেকশনও সাড়িয়ে তোলে।

১৯. লেবু পানি দেহের ব্লাড প্রেশার নিয়ন্ত্রনে রাখে। রোজ পান করলে উচ্চরক্তচাপ ১০ শতাংশ কমে যায়।