মেইন ম্যেনু

শতাধিক সন্তান আছে, আরও চান

আফ্রিকার দেশ ঘানার একটি ছোট্ট গ্রাম আমানকরম। এই গ্রামের বাসিন্দা কফি আসিলেনু। ৮০ বছর বয়সী আসিলেনু শতাধিক সন্তানের বাবা। আরও সন্তান চান তিনি।

বিবিসি অনলাইনের খবরে বলা হয়, কফির ১২ জন স্ত্রী আছেন। আর সন্তান ১০০ জনের বেশি। রাজধানী আক্রা থেকে সড়কপথে আমানকরম গ্রামে যেতে সময় লাগে ৪৫ মিনিটের মতো। গ্রামটির মোট জনসংখ্যা ৬০০ জনের মতো। সেই হিসাবে গ্রামটির মোট জনসংখ্যার ছয় ভাগের এক ভাগেরও বেশি মানুষ কফির পরিবারের সদস্য।

কফির ভাষ্য, তাঁর কোনো ভাইবোন বা চাচা নেই। এ কারণে বড় পরিবার চেয়েছেন তিনি। কফি বলেন, তাঁর মৃত্যুর পর পরিবারের সদস্যরা যাতে জাঁকজমকপূর্ণভাবে তাঁকে সমাধিস্থ করতে পারে, এমনটাই চান তিনি। কফি জানান, তাঁর জন্মস্থানে সন্তান জন্ম দেওয়ার বিষয়টিকে গুরুত্বপূর্ণ বিবেচনা করা হয়। এসব কারণে বেশি সন্তানের জনক হতে চেয়েছেন তিনি।

শতাধিক সন্তানের বাবা কফিকে শারীরিকভাবে এখনো শক্ত–সামর্থ্যই মনে হয়। তিনি এখানেই থামতে চান না। আরও সন্তান জন্ম দেওয়ার আশায় আছেন তিনি। সংসার বড় হওয়া সত্ত্বেও কফির ১২ স্ত্রী ভালোই আছেন। তাঁরা সবাই সুখী। কফির প্রথম স্ত্রী নিয়োমে আসিলেনু বলেন, ‘আমাদের বিয়ের পর তিনি আবার বিয়ে করতে চাইলেন। আমাদের সবাইকে দেখভাল করার সামর্থ্য আছে তাঁর। সন্তানদের পড়াশোনার খরচ চালাতে পারেন। সবাই স্বাস্থ্যবান ও শক্তিশালী। তাই তাঁর একাধিক বিয়েতে ভুল কিছু দেখছি না।’

উল্লেখ্য, ঘানায় বহুবিবাহের প্রচলন আছে। দেশটিতে বহু সন্তানকে সম্পদের প্রতীক হিসেবে দেখা হয়।






মন্তব্য চালু নেই