মেইন ম্যেনু

শরণার্থীদের পানশালা, ক্লাবে যাওয়া মানা!

জার্মানির ফ্রেইবার্গ শহরে শরণার্থীদের জন্য পানশালা ও নাইটক্লাব নিষিদ্ধ করা হয়েছে। অবশ্য এটি সরকারি পদক্ষেপ নয়। পানলাশা ও নাইটক্লাবের মালিকরা যৌথ উদ্যোগ নিয়ে শরণার্থীদের তাদের প্রতিষ্ঠানে আসা নিষিদ্ধ করেছে।

ডয়চে ভেলের এক খবরে মঙ্গলবার এ তথ্য জানানো হয়েছে।

ফ্রেইবার্গ জার্মানির ‘গ্রিন শহর’ বলে সমধিক পরিচিত। এই শহর নিয়ে জার্মানিরা গর্ব করে। শহরটি সব মানুষের জন্য উন্মুক্ত ও বন্ধুত্ব দেখাতে এখানকার জার্মানরা কার্পণ্য করে না। সেই উদার শহরের পানশালায় ও নাইটক্লাবে নিষিদ্ধ করা হলো শরণার্থীদের।

নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে এই উদ্যোগ নিওয়া হয়েছে। জার্মানিতে শরণার্থীদের ঘটানো কয়েকটি দুর্ঘটনার পর ফ্রেইবার্গের পানশালা ও নাইটক্লাবের মালিকারা এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।

শরণার্থীদের বিরুদ্ধে অভিযোগ করা হচ্ছে, পানশালায় আসা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের পকেট মারছে শরণার্থীরা। এ ছাড়া সুযোগ পেলে যৌন নীপিড়ন চালাচ্ছে তারা। এতে করে নিরাপত্তা ঝুঁকি বেড়ে গেছে মারাত্মকভাবে। ফলে আইনশঙ্খলার অবনতি রুখতে মালিকরা এই পদক্ষেপ নিতে বাধ্য হচ্ছেন।