মেইন ম্যেনু

শরণার্থীদের ভাগাভাগি করে নেবে ইউরোপের বিভিন্ন দেশ

গ্রিস, ইতালি ও হাঙ্গেরি থেকে ইউরোপে পাড়ি জমানো শরণার্থীদের কোটার ভিত্তিতে আশ্রয় দিতে রাজি হয়েছে ইউরোপীয় ইউনিয়ন (ইইউ)।

মঙ্গলবার ব্রাসেলসে ইইউর স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীদের বৈঠকে এ বিষয়টির অনুমোদন দেয়া হয়। ১ লাখ ২০ হাজার শরণার্থীকে ভাগাভাগি করে নেবে ইউরোপের বিভিন্ন দেশ।

ব্রাসেলসে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীদের বৈঠকে কোটা পদ্ধতি অনুমোদিত হলেও এদিন এর বিপক্ষে কয়েকটি দেশ ভোট দেয়। দেশগুলো হলো- রোমানিয়া, হাঙ্গেরি ও চেক প্রজাতন্ত্র। অন্যদিকে ফিনল্যান্ড মঙ্গলবার ব্রাসেলসের বৈঠকে কোটা নির্ধারণ নিয়ে ভোটাভুটি থেকে বিরত ছিল।

এদিকে বার্তা সংস্থা রয়টার্সের খবরে বলা হয়, জাতিসংঘের শরণার্থীবিষয়ক সংস্থা ইউএনএইচসিআর বলেছে, ইইউর ১ লাখ ২০ হাজার শরণার্থী নেওয়ার পরিকল্পনা কাজ করবে না, যদি না তাদের জন্য ভালো অভ্যর্থনার ব্যবস্থাও করা না হয়। সংস্থাটির মুখপাত্র মেলিসা ফ্লেমিং বলেছেন, শরণার্থীদের শুধু স্থানান্তর কর্মসূচির মাধ্যমে চলমান পরিস্থিতি স্থিতিশীল করা যাবে না।