মেইন ম্যেনু

শরীরের কোন অংশ হঠাৎ পুড়ে গেলে কী করবেন? জেনে নিন কিছু ঘরোয়া পদ্ধতি…

হঠাৎ ছ্যাঁকা বা পুড়ে যাওয়া গুরুতর হতেও পারে আবার না-ও পারে। কত ডিগ্রি বার্ন তার উপরে নির্ভর করছে ঠিক কী ধরনের চিকিৎসা প্রয়োজন।

রান্না ঘরের ছোটখাটো ছ্যাঁকা বা অন্য কোনও গরম জিনিসে হাত পুড়ে যাওয়ার ক্ষেত্রে কিন্তু সব সময় হাসপাতাল বা চিকিৎসা কেন্দ্রে যেতে হয় না। বেশ কিছু ঘরোয়া টোটকা চটজলদি কাজে দেয়। তবে খুব বেশি পুড়ে গেলে চিকিৎসকের পরামর্শ জরুরি।

নিচে রইল ৪টি ঘরোয়া টোটকা। আসুন জেনে নিন এই ৪টি ঘরোয়া পদ্ধতি।

১.কালো চা বা ব্ল্যাক টি: ব্ল্যাক টি’তে রয়েছে ট্যানিক অ্যাসিড যা পুড়ে যাওয়া ত্বকের উপরে চটজলদি কাজ করে এবং ব্যথা কমতে সাহায্য করে। আপনার ত্বকের পোড়া অংশটির উপরে একটি ঠান্ডা ব্ল্যাক টি-ব্যাগ রেখে একটি গজ কাপড়ের সাহায্যে বেঁধে রাখুন। চটজলদি উপকার পাবেন।

২.মধু: মধুতে রয়েছে অ্যান্টিব্যাকটেরিয়াল উপাদান যা আপনার ত্বককে ইনফেকশন হওয়ার হাত থেকে রক্ষা করে। মধু আপনার ত্বককে ঠান্ডা রাখতেও সাহায্য করে। তাই ছ্যাঁকা লাগলে বা পুড়ে গেলে সেই জায়গায় মধু লাগাতে পারেন।

৩.দুধ: দুধে রয়েছে প্রোটিন এবং ফ্যাট যা কেবল আপনার ত্বককে ঠান্ডাই রাখে না, পোড়া স্থানটিকে ভাল করে তোলে। পুড়ে যাওয়ার পরে ১৫ মিনিট দুধের মধ্যে হাত ডুবিয়ে রাখুন। অনেকটা রিলিফ হবে।

৪. টুথপেস্ট: পোড়া স্থানটিকে জল দিয়ে ভাল করে ধুইয়ে নিয়ে জায়গাটি শুকিয়ে নিন। এর পর পোড়া স্থানে পুদিনা টুথপেস্ট লাগিয়ে নিন। সঙ্গে সঙ্গে আরাম পাবেন। পুদিনা টুথপেস্ট না থাকলে যে কোনও টুথপেস্ট লাগাতে পারেন।