মেইন ম্যেনু

শরীরের সৌন্দর্য্য প্রদর্শন করা আমার অধিকার: কিম কার্দাশিয়ান

‘একদল মানুষ আছেন যাঁদের কাজ অন্যদের পিছনে ঘ্যান-ঘ্যান করা। শরীরী সৌন্দর্য্যেই আমি বিকশিত। শরীরের সৌন্দর্য্য প্রদর্শন করা আমার অধিকার।’ ইনস্টাগ্রামে নগ্ন ছবি পোস্ট করে সোশ্যাল মিডিয়ায় ঝড় তুলে দিয়েছেন কিম কারদাশিয়ান। তাঁর ওই ছবির সমালোচনা করে ইন্টারনেটে একাধিক পোস্ট জমা পড়েছে।

এঁদের মধ্যে অনেকে আবার হলিউড তারকা। আর এতেই ক্ষেপেছেন টিভি রিয়্যালিটি শো-এর তারকা কিম কারদাশিয়ান। সমালোচকদের তুলোধনা করার সঙ্গে সঙ্গে জানিয়ে দিয়েছেন, যা করেছেন বেশ করেছেন।

কারদাশিয়ান তাঁর পোস্টে লিখেছেন, শরীরের সৌন্দর্য্য প্রদর্শন করা আমার অধিকার। এর জন্য কারোর অনুমতির দরকার নেই। মাদক সেবন করি না, কদাচিৎ মদ্যপান করে থাকি, ধূমপানও করি না, তা হলে শরীরের সোন্দর্য্য দেখানোর জন্য আমাকে কেন খারাপ বলা হবে? ১৩ বছর আগের একটি সেক্স টেপ নিয়ে লোকে কথা বলছে, কেন? এত পুরনো একটা বিষয়কে নিয়ে কাঁটাছেড়া করে লাভ কী? কিছু লোকের সঙ্কীর্ণ মানসিকতায় আমি সত্যিকারেই আতঙ্কিত। কিন্তু, এতে আমি দমছি না। আমার স্বাধীনতা নিয়ে আমি এগোব এবং শরীরী সৌন্দর্য্যের যে সম্পদ আমার আছে তাতে আমি নিজেকে বিকশিত করবই’।

বোঝাই যাচ্ছে কিম কারদাশিয়ান তাঁকে নিয়ে হওয়া সমালোচনায় প্রবলভাবে ক্ষুব্ধ। কিন্তু, ক্ষিপ্ত সুন্দরীকে কেউ এটা বোঝানোর দায় নিতে রাজি নন যে তিনি যেমন শরীর দেখানোকে তাঁর অধিকার বলে মানছেন, তেমনি সমালোচকরা সমালোচনাকে তাঁর মত বলে দাবি করছেন। এমনটা হয়েই থাকে। কারদাশিয়ান কি সেটা বুঝছেন?