মেইন ম্যেনু

শহীদ মোহসিন একজন মুক্তিযোদ্ধা, তার নামে হয়েছে শহীদ মোহসিন স্মৃতি সংঘ

মাদারীপুর প্রতিনিধি: শহীদ মোহসিন মাদারীপুর জেলার বাসীন্দা ছিলেন। তিনি স্বাধীনতা যুদ্ধের মহান মুক্তিযুদ্ধের একজন অন্যতম সংগঠক। মাদারীপুর নতুন শহর প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক হিসেবে নিয়োজিত ছিলেন।

বঙ্গবন্ধুর ৭ মার্চ ভাষনের পর সারাবাংলার মুক্তিগামী মানুষ যখন দেশকে স্বাধীন করার জন্য কঠিন প্র¯ুÍতি নিয়েছিলেন, তখন তিনি আচমত আলী খান, ফনিভূষন মজুমদার, ইস্টওয়ার মুজিব, সওকাত আলীসহ আওয়াম লীগের নেতৃত্বে সামিল হয়ে নাম লিখেছেন মহান মুক্তিযুদ্ধে।

মাদারীপুরের মুক্তিযুদ্ধের সাথে শুরুতেই জরিত ছিলেন তিনি। মুক্তিযুদ্ধের সংগঠন থেকে শুরু করে মুক্তিযোদ্ধাদের গোপন সংবাদ সরবরাহ, ঔষধ সরবরাহ নানা কর্মকান্ডে জরিত ছিলেন তিনি। এই কারনে এদেশের রাজাকারদের সহযোগীতায় পাকবাহিনী ধরে নিয়ে যায় তাকে।

১৯৭১ সনের জুুন মাস ১৫ তারিখ সদর হাসপাতালের কর্মরত আলতাফ হোসেনের বাসা থেকে মুক্তিযোদ্ধাদের জন্য গোপনে ঔষদ নিয়ে যাচ্ছেন ডনোভান গালর্স স্কুলের পাস দিয়ে কিন্তু ধরা পড়ে যান তিনি। এর পরে তিনি আর কখনও ফিরে আসেননি। তার লাশও খুঁজে পাওয়া যায়নি। ১৯৭১ সালে এদেশের মুক্তিযুদ্ধের সময় অসংখ্য শহীদের লাশের ভিরে তার লাশও হারিয়ে গিয়েছে।

১৯৭২ সালে তার স্মৃতিকে চির অম্লান রাখার জন্য সৈয়দ তফিকুল ইসলাম তফুর উদ্যোগে একদল যুবক ‘শহীদ মোহসিন স্মৃতি সংঘ’ গড়ে তোলেন। এ প্রতিষ্ঠানটি শুরু থেকেই সাংস্কৃতিক অঙ্গন ও সামাজিক কর্মকান্ডে রাখে ব্যাপক অবদান। কোথায় রাস্তা ভেঙে গেছে সেখানে ছুটে গেছে সংঘের সদস্যরা তারা নিজ হাতে সংস্কার করেছেন রাস্তা, শহরকে পরিছন্ন করার জন্য সময় অসময়ে অভিযানে নেমেছেন, করেছেন নিরক্ষরতা দুরীকরন ও স্বাধীনতার ডাক কর্মসূচিতে অশংগ্রহন করেন এ প্রতিষ্ঠানের সদস্যরা এবং আয়োজন করেছে বিভিন্ন সংগঠনের অনুষ্ঠানের। বিভিন্ন জাতীয় দিবসকে সামনে রেখে প্রকাশ করে স্মারখ লিপি, সাহিত্য পত্রিকা, গড়ে তুলেছে একটি স্বক্রিয় পাঠাগাড়, মাদক ও সন্ত্রাসের বিরুদ্ধে আন্দেলন করেন।

শহীদ মোহসিন স্মৃতি সংঘের ক্রিয়া অঙ্গনের খেলোয়াড়গন অশংগ্রহন করছেন ফুটবল, ক্রিকেট. হকিসহ মাদারীপুরে প্রায় আয়োজিত সকল ক্রিয়া প্রতিযোগীতায়। ১৯৮১, ৮২ ও ৮৩ সালে পরপর তিনবার টানা চ্যাম্পিয়ন হয়েছে জেলা হকি লীগ টুর্নামেন্টে। এছারাও ফুটবল লীগে ও ক্রিকেটে নানা ট্রফি পেয়েছেন।

এভাবে নানা সামাজিক কর্মকান্ডে এই সংঘের সদস্যরা জরিত ছিলেন তারই ধারাবাহিকতায় সম্প্রতি শহীদ মোহসিন স্মৃতি সংঘের উদ্যোগে অনুষ্ঠিত হয়ে গেল নৌপরিবহন মন্ত্রী শাজাহান খানের সংবর্ধনা অনুষ্ঠান।