মেইন ম্যেনু

শালার দোকানের চা খেয়ে দুলাভাইয়ের মৃত্যু

চা পান করে জয়নাল শেখ (৬০) নামে এক ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে। তিনি সম্পর্কে চা দোকানি সায়েম মিয়ার দুলাভাই হতেন। পান করে দোকানদারের ছেলে সুমন মাতুববরও (২৫) গুরুতর অসুস্থ হয়েছেন। রোববার রাত ৮ টার দিকে ফরিদপুরের ভাঙ্গায় উপজেলার পূর্ব সদরদী ইউনিয়ন পরিষদের সামনে চা দোকানে এ ঘটনা ঘটে।

স্থানীয়দের ধারণা, সায়েম মিয়া মেয়াদোত্তীর্ণ চা বিক্রি করার কারণে এই ঘটনা ঘটেছে। তবে কেউ কেউ মনে করছেন, চায়ের পরিবর্তে দোকানদার ভুল করে ‘ফুরাডান’ (জমিতে প্রয়োগ করা হয়/ এক ধরনের কীটনাশক) দিয়ে চা বানিয়ে ফেলেছিলেন।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, পূর্ব সদরদী ইউনিয়ন পরিষদের সামনে ওই ইউপির এক নারী মেম্বারের স্বামী সায়েম মিয়ার চায়ের দোকান রয়েছে। ঘটনার সময়ে কাস্টমাররা তার কাছে ৩টি টি-ব্যাগ ও ২টি কাঁচা পাতির চা অর্ডার দেন। চা দিতে দেরি হলে ওই এলাকার মেম্বার আবদুর রব চা পান না করেই চলে যান। এসময় দোকানদার কাঁচা পাতির ১টি চা তার দুলাভাই জয়নালকে এবং অপর ১টি চা তার ছেলে সুমনকে দেন। চা পান করার সাথে সাথে দুইজনই অসুস্থ হয়ে মাটিতে লুটিয়ে পড়েন। স্থানীয়রা তাদেরকে প্রথমে ভাঙ্গা হাসপাতালে এবং পরে অবস্থা খারাপ হলে সেখান থেকে স্থানান্তর করা হয় ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে। সেখানেই মারা যান দুলাভাই জয়নাল শেখ।

ভাঙ্গা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মিজানুর রহমান জানান, ঘটনাটি আমি শুনেছি। তবে এ ব্যাপারে কেউ কোনো অভিযোগ করেনি। নিহতের লাশ ফরিদপুর হাসপাতালে রয়েছে।



« (পূর্বের সংবাদ)