মেইন ম্যেনু

শিক্ষক নিবন্ধনে প্রিলিমিনারির ফল প্রকাশ

দ্বাদশ বেসরকারি শিক্ষক নিবন্ধনে প্রিলিমিনারি টেস্টের ফল প্রকাশ করা হয়েছে। এবার স্কুল, কলেজে গড় পাসের হার ১৫ দশমিক ৮১ শতাংশ। এর মধ্যে স্কুল পর্যায়ে পাসের হার ১৩ দশমিক ০৯ ও কলেজ পর্যায়ে ২০ দশমিক ৯৬ শতাংশ।

বেসরকারি শিক্ষক নিবন্ধন ও প্রত্যায়ন কর্তৃপক্ষের (এনটিআরসিএ) সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে মঙ্গলবার ফল প্রকাশের কথা জানানো হয়। পরীক্ষার ফলাফল http://ntrca.teletalk.com.bd ওয়েবসাইট থেকে জানা যাবে। তা ছাড়া উত্তীর্ণ প্রার্থীদের এসএমএসের মাধ্যমেও ফলাফল জানিয়ে দেবে।

নতুন নিয়ম অনুযায়ী উত্তীর্ণরা বেসরকারি স্কুল-কলেজ, মাদ্রাসা ও কারিগরি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে শিক্ষক হিসেবে নিয়োগ পেতে লিখিত পরীক্ষায় অংশ নিতে পারবেন।

এনটিআরসিএ গত ১২ জুন দ্বাদশ শিক্ষক নিবন্ধন পরীক্ষার প্রিলিমিনারি পরীক্ষা নেয়। পরীক্ষায় মোট ৪ লাখ ৮০ হাজার ৬৭০ জন অংশ নেন। এর মধ্যে স্কুল পর্যায়ে পরীক্ষার্থী ৩ লাখ ১৪ হাজার ৭৩৯ ও কলেজ পর্যায়ে ১ লাখ ৬৫ হাজার ৯৩১ জন।

মোট উত্তীর্ণ হয়েছে ৭৫ হাজার ৯৮৯ জন। এর মধ্যে স্কুল পর্যায়ে ৪১ হাজার ২০৩ জন ও কলেজ পর্যায়ে ৩৪ হাজার ৭৮৬ জন উত্তীর্ণ হয়েছেন।

এবার থেকে বেসরকারি শিক্ষক নিবন্ধন পরীক্ষার পদ্ধতিতে পরিবর্তন আনা হয়েছে। একসঙ্গে দুই পরীক্ষার পরিবর্তে এখন থেকে আলাদাভাবে প্রিলিমিনারিতে পাস করার পর লিখিত পরীক্ষা দিতে হচ্ছে। লিখিত পরীক্ষায় পাস করলেই পাওয়া যাবে সনদ।

আগে স্কুল এবং কলেজ পর্যায়ে দুটি পরীক্ষা একসঙ্গে ৪ ঘণ্টা ধরে (এমসিকিউ পদ্ধতিতে আবশ্যিক বিষয়ের পরীক্ষা এক ঘণ্টা এবং বর্ণনামূলক পদ্ধতিতে বিষয়ভিত্তিক লিখিত পরীক্ষা ৩ ঘণ্টা) বিরতিহীনভাবে নেওয়া হতো।

দ্বাদশ শিক্ষক নিবন্ধন পরীক্ষার ক্ষেত্রে প্রথম ধাপে এক ঘণ্টার ১০০ নম্বরের প্রিলিমিনারি টেস্ট অনুষ্ঠিত হয়েছে। এ পরীক্ষায় পাস করা পরীক্ষার্থীরা বর্ণনামূলক পদ্ধতিতে বিষয়ভিত্তিক ১০০ নম্বরের লিখিত পরীক্ষায় অংশ নেবেন।

বেসরকারি স্কুল ও কলেজে শিক্ষক নিয়োগ পেতে এনটিআরসিএ সনদ বাধ্যতামূলক। নিবন্ধন সনদের মেয়াদ আগে ৫ বছর থাকলেও ২০১৩ সালের ২০ জুন তা আজীবন করা হয়।