মেইন ম্যেনু

শিক্ষার্থী-পুলিশ ধাওয়া-পাল্টাধাওয়া, গুলির অভিযোগ

বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীদের টিউশন ফির ওপর আরোপিত ভ্যাট বাতিলের দাবিতে রাজধানীর রামপুরা ব্রিজের পাশে ইস্ট ওয়েস্ট ইউনিভার্সিটির শিক্ষার্থীদের সঙ্গে পুলিশের ধাওয়া-পাল্টাধাওয়া হয়েছে। বুধবার দুপুর ২টার শিক্ষার্থীরা ব্রিজের উপর অবস্থান নিলে পুলিশ এসে লাঠিচার্জ ও টিয়ারশেল নিক্ষেপ করে তাদের ছত্রভঙ্গ করে দেয়।

আন্দোলনরত শিক্ষার্থীদের অভিযোগ পুলিশ তাদেরকে লক্ষ্য করে গুলি ছুঁড়েছে। এদিকে পুলিশের পক্ষ থেকে লাঠিচার্জ ও গুলি ছোঁড়ার অভিযোগ অস্বীকার করা হয়েছে।

ছত্রভঙ্গ শিক্ষার্থীরা একপর্যায়ে ইস্ট ওয়েস্ট ইউনিভার্সিটির প্রধান ফটকের সামনের সড়কে অবস্থান নেয়। বর্তমানে পুলিশ-শিক্ষার্থীরা মুখোমুখি অবস্থানে রয়েছে। এ ঘটনায় ১০ শিক্ষার্থী আহত হয়েছেন।

ইস্ট ওয়েস্ট ইউনিভার্সিটির শিক্ষার্থী তানজিস বলেন, ‘বাজেটে সরকার টিউশন ফির ওপর ১০ শতাংশ ভ্যাট নির্ধারণ করেছিল। পরবর্তীতে আড়াই শতাংশ কমিয়ে সাড়ে ৭ শতাংশ করা হয়। এ ব্যয়ভার আমাদের পক্ষে বহন করা কঠিন। এ ফি প্রত্যাহারের দাবিতে আমরা শান্তিপূর্ণ কর্মসূচি পালন করছিলাম। হঠাৎ পুলিশ এসে বিনা উস্কানিতে লাঠিচার্জ, টিয়ারশেল ও গুলিবর্ষণ করেছে। এ সময় আমাদের এক শিক্ষকসহ ১০ জন আহত হয়েছেন। তাদের ভার্সিটির মেডিকেল সেন্টারে ভর্তি করা হয়েছে।’

এদিকে হামলার কথা অস্বীকার করে গুলশান জোনের উপ-পুলিশ কমিশনার মোস্তাক আহমেদ বলেন, ‘ভ্যাট বাতিলের দাবিতে আধাঘণ্টা রামপুরা সড়ক অবরোধ করে রাখে শিক্ষার্থীরা। এতে জনদুর্ভোগ সৃষ্টি হয়। এ জন্য তাদের সরিয়ে দেওয়া হয়েছে। তাদের ওপর লাঠিচার্জ কিংবা গুলি ছোড়া হয়নি।’