মেইন ম্যেনু

শিক্ষিকার সালোয়ার কামিজ পড়া নিয়ে তুলকালাম কান্ড স্কুলে!

শিক্ষিকার সালোয়ার কামিজ পড়া নিয়ে তুলকালাম কান্ড ঘটেছে এক স্কুলে। চলছে বিক্ষোভ। বন্ধ রয়েছে ক্লাস। ঘটনাস্থল ভারতের পশ্চিমবঙ্গের হাওড়ার জয়পুরের একটি স্কুল। কেন শাড়ির বদলে শিক্ষিকা সালোয়ার কামিজ পড়ে স্কুলে পড়াতে আসবেন তা নিয়ে প্রশ্ন তোলেন প্রধান শিক্ষক। শুধু তাই নয়, শাড়ি পড়ে না আসলে ওই শিক্ষিকাকে স্কুলে পড়াতে দেওয়া হবে না বলেও মন্তব্য স্পষ্ট জানিয়ে দেন তিনি।

জানা যায়, শুভ্রা দাঁ নামে বাংলার ওই শিক্ষিকা দুদিন আগে স্কুলে সালোয়ার কামিজ পড়ে পড়াতে আসেন। আর তাতে আপত্তি জানান প্রধান শিক্ষক সুনীল কুমার দলুই। স্কুলটি গ্রাম্য এলাকায় বলে তাকে পোশাষ বিধি মেনে চলার নির্দেশ দেন সুনীল দলুই। কিন্তু শিক্ষিকা তা মানতে অস্বীকার করেন। এর থেকেই সমস্যার সূত্রপাত।

পাল্টা শিক্ষিকার দাবি, শাড়ি পরে আসা নিয়ে প্রধান শিক্ষক মানসিক চাপ দিচ্ছিলেন বহুদিন ধরে। এমনকী তাকে হেনস্থাও করা হয়েছে বলে অভিযোগ তোলেন তিনি। প্রধান শিক্ষকের অপসারনের দাবি জানান তিনি। এরপরই ওই স্কুলের সমস্ত ছাত্রছাত্রীরা বিক্ষোভ শুরু করে দেয়। বিক্ষোভে যোগ দেয় পড়ুয়াদের অভিভাবকরাও।

শিক্ষার্থীদের দাবি প্রধানশিক্ষককে সরানো চলবে না, প্রয়োজনে বাংলার শিক্ষিকাকে সরানো যেতে পারে। তিনি স্কুলে অতিরিক্ত সাজগোজ মেক আপ করে পড়াতে আসেন বলে অভিযোগ তোলেন তারা। আর এই বিক্ষোভের জেরে স্কুলের পঠনপাঠন শিকেয় উঠেছে। গত ২ দিন ধরে কোনও ক্লাস হচ্ছে না স্কুলে। বিষয়টি তদন্ত করে দেখতে বিডিওকে নির্দেশ দিয়েছেন জেলাশাসক।



(পরের সংবাদ) »