মেইন ম্যেনু

শিশুর মুখে লালা, কী করবেন

শিশুদের মুখ থেকে লালা পড়ে, সেটা আমরা সবাই জানি। কিন্তু শীতে মুখ থেকে খুব বেশি লালা ঝরে শিশুর বুক ভিজে যায়। এতে তার ঠাণ্ডা সমস্যাসহ নানা রোগ হতে পারে এ আশংকায় করেন বাবা-মা।

অনেকসময় তারা খুব বেশি লালা পড়াকে রোগ ভেবে চিন্তায় পড়ে চিকিৎসকের কাছে যান।

বিশেষজ্ঞদের মতে, শিশুর মুখে লালা নিয়ে চিন্তার কিছু নেই। সব বাচ্চাই লালা ফেলে এবং অনেকটাই, আর ভাগ্যক্রমে গলায় ঝোলানো বিবে সেটা ধরা পড়ে।

শিশুদের সব সময় লালা পরার কারণ : লালা গ্রন্থি (Salivary gland) পরিপক্ক হতে ৮/১০ মাস সময় লাগে, তাই এই সময়ের মধ্যে শিশুদের মুখ থেকে বেশি লালা ঝরে। অনেক শিশুর তিন মাসের মাথা থেকেই মুখ থেকে লালা ঝরা শুরু হয়। সাধারণত বাচ্চাদের দুধের দাঁত, ছয় থেকে আট মাসের মাথায় বেরোতে শুরু করে। এসময়ও লালা ঝরে।

তবে বিশেষজ্ঞদের মতে, বাচ্চার মুখ থেকে লালা ঝরা বন্ধ করার কিছু উপায় আছে, সেগুলো নিম্নে আলোচনা করা হল :

টুথব্রাশ : একটা ইলেকট্রিক টুথব্রাশ দিয়ে আপনার বাচ্চার মাড়িটা, দিনে দুবার হালকা করে ঘষে দিন। এতে মুখের অনুভূতি বাড়ে, যার ফলে ও মুখে থুতু আসার ব্যপারটা অনুভব করে। এরপর থেকে নিজে থেকেই থুতুটা গিলে নিতে শিখে যাবে।

স্ট্রয়ের মজা : শিশুকে চুমুক দিয়ে খাওয়ার কাপ সরিয়ে, এমন একটা স্ট্র সমেত কাপ দিন, যেটা থেকে চট করে কিছু ছলকে পড়বে না। স্ট্র দিয়ে টানতে শিখলে, ওর জিভের ওপর নিয়ন্ত্রণ ও জোর, দুটোই বাড়বে।

কিছু চিবোতে দিন : কিছু একটা হালকা চিবোতে দিন, যেটা দিয়ে ওর মাড়িতে আরামও হয়। এই সাময়িক ব্যবহারের জিনিসটি, ওর লালা ফেলার অভ্যেসটি বন্ধ করে দেবে।

জেলি : শিশুর থুতনিতে পেট্রোলিয়াম জেলি ব্যবহার করুন। এটা থুতু গড়িয়ে পড়া আটকাবে।

মুছে ফেলা : যখনই আপনার বাচ্চার মুখ থেকে থুতু বেরোবে, সেটা মুছে দিন। যখন আপনি বারবার মুখ মোছাবেন ও আপনা থেকেই বিরক্ত হয়ে, পরেরবার থুতু ফেলার আগেই গিলে নেবে।

হালকা ফুঁ : বাচ্চার মুখে হালকা করে ফুঁ দিন, যাতে ওর মনটা অন্যদিকে যায়।

শিশুকে শেখান : যখনই ওর মুখ থেকে খুব বেশি থুতু বেরোয়, সেটা টেনে নিতে নিজের মুখের ভেতরেই রাখাটা শেখান। এটা সবচেয়ে ভাল উপায়।

ঘুমের ভঙ্গি বদল : শিশু, ঘুমের মধ্যে খুব বেশি লালা ফেললে ঘুমানোর ভঙ্গিটা পালটে দিন। পাশ ফিরে শোওয়ার থেকে, পিঠে চিৎ হয়ে শুলে, সেটা লালা পড়া আটকায়।