মেইন ম্যেনু

শিশু ও নারী নির্যাতন বন্ধে মাঠে নেমেছে এরশাদ

দেশে শিশু হত্যা ও নারী নির্যাতন বন্ধের দাবিতে মাঠে নেমেছেন জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান ও সাবেক রাষ্ট্রপতি হুসেইন মুহাম্মদ এরশাদ। শিশু হত্যা ও নারী নির্যাতন বন্ধের দাবি নিয়ে তার নেতৃত্বে একটি মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে।

আজ মঙ্গলবার বেলা ১১টা থেকে ১২টা পর্যন্ত জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে এই মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। পরে প্রেসক্লাব থেকে মতিঝিল শাপলা চত্বরে গিয়ে মানববন্ধনটি শেষ হয়।

মানববন্ধনে হুসেইন মুহাম্মদ এরশাদ বলেন, ‘আজ সমাজের সর্বাঙ্গে বিশৃঙ্খলা। এ অবস্থা আগে ছিল না। বাঙ্গালী আগে এত নির্দয় ছিলনা। রাজনৈতিক কারণেই দেশের এই অবস্থা।’

তিনি বলেন, ‘এই সমাজে মানুষ বাস করতে পারছেনা। প্রতিদিনই হত্যাকাণ্ড ঘটছে। দেশে সুশাসন নেই বলেই এই হত্যাকাণ্ড ঘটছে। আইনের শাসন নেই বলে খুনিরা খুন করতে ভয় পায়না।’

সরকারের উদ্দেশ্যে হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করে প্রধানমন্ত্রীর এই বিশেষ দূত বলেন, ‘রাজন, রবিউল, রাকিব হত্যা হয়েছে। এই হত্যাকাণ্ড বন্ধ করুন। এভাবে হত্যাকাণ্ড চলতে থাকলে আমরা বসে থাকব না, দেশের জনগণ বসে থাকবে না।’

দেশবাসীকে এই হত্যাকাণ্ড বন্ধে প্রতিবাদ করার আহ্বান জানিয়ে তিনি বলেন, ‘হত্যাকাণ্ড বন্ধে প্রতিবাদের ঝড় তুলুন। প্রতিবাদ করে সরকারকে এই অপরাধীদের বিচার করতে বাধ্য করি। তাছাড়া এ দেশে বাস করা যাবে না।’

বক্তব্য শেষে ‘শিশু হত্যা’ও ‘নারী নির্যাতন’বন্ধে স্লোগান তোলেন সাবেক এই রাষ্ট্রপতি। এসময় তার স্লোগানে সাড়া দিয়ে মানববন্ধনে উপস্থিত জনতা বলতে থাকেন, ‘বন্ধ কর, বন্ধ কর।’

মানববন্ধনে আরও উপস্থিত ছিলেন, জাতীয় পার্টির মহাসচিব জিয়া উদ্দিন বাবলু, প্রেসিডিয়াম সদস্য আবু হোসেন বাবলা, ফয়সাল হোসেন চিশতী, সংরক্ষিত আসনের সংসদ সদস্য রওশন আরা মান্নান প্রমুখ।