মেইন ম্যেনু

শীতে ফের আয়কর মেলা!

আগামী শীতের শুরুতে আরও একটি আয়কর মেলা আয়োজনের ব্যাপারে সরকারের পক্ষ থেকে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের (এনবিআর) চেয়ারম্যান নজিবুর রহমান।

মঙ্গলবার রাজধানীর অফিসার্স ক্লাবে সপ্তাহব্যাপী আয়কর মেলার সমাপনী অনুষ্ঠানে বক্তব্য প্রদানকালে তিনি এ কথা জানান।

তিনি বলেন, চলমান মেলার সাফল্যের কারণে অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত শীতের শুরুতে আরেকটি মেলার আয়োজন করা যায় কিনা সে বিষয়টি ভেবে ব্যবস্থা নেয়ার কথা বলেছেন।এনবিআরও বিষয়টি খতিয়ে দেখছে।

১৬ সেপ্টেম্বর থেকে শুরু হওয়া আয়কর মলোর সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রী আনিসুল হক। এসময় অন্যান্যদের মধ্যে অর্থ ও পরিকল্পনা প্রতিমন্ত্রী এমএ মান্নান, এনবিআরের সদস্য (কর প্রশাসন ও মানবসম্পদ) আবদুরে রাজ্জাক উপস্থিত ছিলেন।

অনুষ্ঠানে আইনমন্ত্রী বলেন, আয়কর মেলা একটি অভিনব সংযোজন। এ মেলা দেশে ও দেশের বাইরে প্রশংসা কুড়িয়েছে।

তিনি বলেন, বিদ্যমান আয়কর আইনকে যুগোপযোগী করার প্রয়োজন রয়েছে। আশা করি ২০১৬ সালের মধ্যে দেশকে নতুন আয়কর আইন উপহার দিতে পারবো।

শীতকালে মেলা আয়োজনের ব্যাপারে আনিসুল হক বলেন, আমি এনবিআরের চেয়ারম্যানকে বলবো শীত মেলায় যেন শীতের পিঠা খাওয়ার ব্যবস্থা থাকে।

অর্থ প্রতিমন্ত্রী বলেন, শুধু শীতকালে নয় শরৎ করমেলা, বর্ষা করমেলার আয়োজন কারা যেতে পারে।

তিনি বলেন, পৃথিবীর আর কোথাও করমেলা আয়োজন করা হয় কিনা আমাদের জানা নেই। বাঙ্গালীরা বিভিন্ন কারণে মেলা প্রিয়, আমরা এই দুর্বলতাকে আরও কাজে লাগাতে চাই।

এনবিআরের সদস্য আবদুর রাজ্জাক জানান, আজ বিকেল ৩ টা পর্যন্ত মেলায় সাড়ে সাত লাখ ব্যক্তি সেবা গ্রহণ করেছেন, যা গত বছরের তুলনায় ১৯ শতাংশ বেশি। মেলায় বেলা তিনটা পর্যন্ত সারাদেশে ১৯০০ কোটি টাকার কর আদায় হয়েছে। এনবিআর আশা করছে. আজ যতক্ষণ করদাতারা আসবেন ততক্ষণ মেলা চলেবে।তিনি বলেন, মেলা শেষে কর আদায় দুই হাজার কোটি টাকা স্পর্শ করবে।

তিনি আরও জানান, মেলায় এ পর্যন্ত ১ লাখ ৫০ হাজারটি রিটার্ন দাখিল হয়েছে, যা মেলার শেষ পর্যন্ত ১ লাখ ৬০ হাজারে উন্নীত হতে পারে।