মেইন ম্যেনু

শূন্যে ভেসে আছে পাথরটি!

মহাকর্ষের ধারণাকে মিথ্যা প্রমাণ করে দিয়ে ঠায় দাঁড়িয়ে আছে এই পাথরটি। ভূমি থেকে একেবারে ২৫ ফিট উপরে। একদিন দুইদিন ধরে নয়, বিগত কয়েক দশক ধরেই এভাবে দাড়িঁয়ে আছে এটি। এই পাথরটি মূলত বৌদ্ধদের একটি উপাসনালয়, প্যাগোডা। এটির দেখা মিলবে মিয়ানমারে গেলে।

2016_04_20_17_06_55_f7q2FdASMmRsxlT0qv6Ayh6ERDNn5I_original

স্থানীয় মানুষ এর নাম দিয়েছে ‘কেয়াইকটিয়ো প্যাগোডা’, ইংরেজিতে যাকে বলা হয় ‘গোল্ডেন রক’। কথিত আছে, বৌদ্ধ ধর্মের প্রতিষ্ঠাতা গৌতম বুদ্ধের চুল সংরক্ষিত আছে এই প্যাগোডায়। বৌদ্ধ ধর্মাবলম্বীদের বিশ্বাস, মিয়ানমারের মন রাজ্যের আশ্চার্যজনক এই প্যাগোডাটি দেখলে যেকোনো লোকের বৌদ্ধধর্ম গ্রহণ করার আগ্রহ জন্মে।

2016_04_20_17_06_59_v4Z60BMoMDi5mOQsjbGvrtQDjgwR9q_original

 

দুটি ভিন্ন পাথরের উপর প্রতিষ্ঠিত এই প্যাগোডা একটি অলৌকিক কীর্তি। পাথরটির আশ্চর্যজনক এই দিকটির কারণে ঈশ্বরের নিদর্শন ভেবে পাথরটির পূজা করে স্থানীয় বাসিন্দারা।

2016_04_20_17_06_54_DaeQ3GBlC2Ryu2kebFLJoC2PqGZlMm_original

বৌদ্ধদের ধারণা, সত্যক্রিয়া ও ধর্মগুণের কারণে সাধারণ মানুষের নাগালের বাইরে দুর্গম পাহাড়ের শীর্ষে দেবতাদের মাধ্যমে এই প্যাগোডা নির্মিত হয়েছে। বলা হয়, এই প্যাগোডা যদি কেউ বছরে তিনবার পরিদর্শন ও পূজা করে তাহলে তার মঙ্গলসাধিত হয়। পুণ্যবান হিসেবে সুখ সম্পদ লাভ করে সে।

2016_04_20_17_06_52_YyFsL7HCha88nJTSxNXLPwAzzyTjgP_original



(পরের সংবাদ) »