মেইন ম্যেনু

শেখ হাসিনার নেতৃত্বে গণতন্ত্রের অভিযাত্রা : স্বাস্থ্যমন্ত্রী নাসিম

সুযোগ সন্ধানী, বিতর্কিত এবং মতলববাজদের আওয়ামীলীগে ঠাই হবে না উল্লেখ্য করে দলের প্রেসিডিয়াম সদস্য, ১৪ দলের মুখপাত্র ও স্বাস্থ্যমন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম বলেছেন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর হাতে গড়া আওয়ামীলীগ একটি বিশাল পরিবার। এ পরিবারের অভিভাবক হচ্ছেন বঙ্গবন্ধু কন্যা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তাঁরই নেতৃত্বে ঐতিহ্যবাহী দল হিসেবে গণতন্ত্রের অভিযাত্রায় চিরদিনই জাতি যে কোন সংকট অতিক্রম করেছে। এ জন্য গণতন্ত্র রক্ষায়, দেশের উন্নয়নে বার বার আওয়ামীলীগ সফল হয়েছে। তাই দলকে বড় করার নামে অনুপ্রবেশকারীদের কোন সুযোগ করে দেয়া যাবে না। দলের দরজা সুযোগ সন্ধানী, বিতর্কিত এবং মতলববাজদের জন্য খোলা রাখা যাবে না। অনুপ্রবেশকারীদের দলে দরকার নেই উল্লেখ্য করে সিনিয়র এ নেতা আরো বলেছেন- দলের সংকট এবং দুঃসময়ে তাদের খুঁজে পাওয়া যাবে না।
বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় তাঁর নির্বাচনী এলাকা কাজীপুরের সোনামুখীতে বিদ্যুৎ সংযোগ প্রদান উপলক্ষে আয়োজিত এক সমাবেশে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন। তিনি সুইচ টিপে স্থলবাড়ি গ্রামের ৩শ ৫০ পরিবারের মধ্যে বিদ্যুত সংযোগের উদ্বোধন করেন। এর আগে তিনি ঢাকা থেকে সিরাজগঞ্জ আসার পথে দুপুরে তেজগাঁস্থ কুর্মিটোলা হাসপাতাল পরিদর্শন করেন।
কাজীপুর উপজেলার সোনামুখী ইউনিয়নের স্থলবাড়ি ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সভাপতি নুরুল ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এ সমাবেশে অন্যানের মধ্যে বক্তব্য দেন জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আবু মোহাম্মদ গোলাম কিবরিয়া, উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি শওকত হোসেন, সাধারণ সম্পাদক খলিলুর রহমান, পল্লী বিদ্যুতের সিনিয়র জিএম প্রকৌশলী তুষার কান্তি দেবনাথ, জিএম আজাহার আলী ও ডিজিএম সুলতান নাসিমুল হক প্রমুখ। এছাড়াও যুবলীগের লুৎফর রহমান মুকুল, জিয়াউর রহমান স্বাধীন, ছাত্রলীগের আল আমিন ও আসলামসহ আওয়ামীলীগের নেতৃবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
সমাবেশে বর্তমান সরকারের সাফল্য তুলে ধরে বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ এগিয়ে যাচ্ছে উল্লেখ্য করে স্বাস্থ্যমন্ত্রী নাসিম বলেছেন, গ্রামের মানুষ এখন আর না খেয়ে থাকে না, শিশু মৃত্যু, মাতৃ মৃত্যুর হার কমেছে। তারা খাদ্য ও রাস্তাঘাটের চেয়ে বেশী বেশী বিদ্যুৎ চায়। এ জন্য বর্তমান সরকার মানুষের বিদ্যুতের চাহিদা মেটাতে নিজস্ব উৎপাদন ছাড়াও বিদেশ থেকে বিদ্যুৎ এনে তা সরবরাহ করছে। এতে বিশ্ববাসীর কাছে শেখ হাসিনার নেতৃত্ব প্রশংসিত হয়েছে।