মেইন ম্যেনু

শেষ ধাপের ভোটযুদ্ধ শুরু

ছয় ধাপে ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) নির্বাচনের শেষ ধাপের ভোটগ্রহণ শুরু হয়েছে। ৭১০ ইউপিতে শনিবার সকাল ৮টায় শুরু হওয়া এ ভোট বিরতিহীনভাবে চলবে বিকেল ৪টা পর্যন্ত। আর এর মধ্য দিয়েই শেষ হবে ইউপি নির্বাচন।

এবারের ইউপি নির্বাচনের শুরু থেকেই ব্যাপক সহিসংসতা লক্ষ্য করা গেছে। গত ফেব্রুয়ারিতে ইউপি নির্বাচনের তফসিল ঘোষণার পর থেকে বৃহস্পতিবার পর্যন্ত সহিংসতায় অন্তত ১০২ জনের মৃত্যু হয়েছে।

এরআগে প্রথম ধাপে ৭১২, দ্বিতীয় ধাপে ৬৩৯, তৃতীয় ধাপে ৬১৫, চতুর্থ ধাপে ৭০৩ ও পঞ্চম ধাপে ৭১৭ ইউপিতে নির্বাচন হয়েছে। এগুলোর মধ্যে অনিয়ম ও সহিংসতার কারণে কিছু ইউপির নির্বাচন আংশিক বা সম্পূর্ণ বাতিল বা স্থগিত করা হয়েছে।

নির্বাচনের পাঁচ ধাপেই বিএনপি প্রার্থীদের ভরাডুবি হয়েছে। দলটির ভাষ্য, নির্বাচনে ব্যাপক কারচুপি হওয়ার কারণে তাদের এ পরিণতি। অন্যদিকে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের নেতারা বিএনপির এমন অভিযোগ প্রত্যাখান করে বলে আসছেন, সহিংস কর্মকাণ্ডের জন্য জনগণ তাদের থেকে মুখ ফিরিয়ে নিয়েছেন।

নির্বাচন ঘিরে ফেব্রুয়ারি থেকেই ব্যাপক সহিংসতার খবর এলেও নির্বাচন আয়োজক প্রতিষ্ঠান নির্বাচন কমিশন (ইসি) নিজেদের মোটামুটি সফল বলেই মনে করছে।

ইসির জনসংযোগ কর্মকর্তা এসএম আসাদুজ্জামান জানিয়েছেন, ষষ্ঠ ধাপে বিভিন্ন ইউপিতে আওয়ামী লীগের ২৮ জন প্রার্থী বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন।

শেষ ধাপে চেয়ারম্যান পদে স্বতন্ত্রসহ বিভিন্ন দলের প্রায় ৩ হাজারের মতো প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এছাড়া সাধারণ ও সংরক্ষিত সদস্য মিলে প্রায় ১০ হাজারের মতো প্রার্থী নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এ ধাপে প্রায় ১ কোটির মতো ভোটার তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগের সুযোগ পাচ্ছেন।

নির্বাচনী এলাকায় অপ্রীতিকর কোনো পরিস্থিতি এড়াতে আইন-শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর সদস্যরা মাঠে রয়েছেন। নির্বাচনী অপরাধের শাস্তি প্রদানে নিয়োগ করা হয়েছে নির্বাহী ও বিচারিক ম্যাজিস্ট্রেট। এছাড়া বিভিন্ন গোয়েন্দা সংস্থার সদস্য মিলিয়ে প্রায় দুই লাখ ফোর্স মাঠে রয়েছেন।