মেইন ম্যেনু

শেষ পর্যন্ত অস্ত্রোপচারই করা লাগবে মুস্তাফিজের

শেষ পর্যন্ত অস্ত্রোপচারই করতে বলা হয়েছে মুস্তাফিজুর রহমানকে। দ্বিতীয় এমআরআই রিপোর্টে মুস্তাফিজের বাঁ কাঁধের ল্যাবরামে ধরা পড়েছে গ্রেড-২ শ্রেণির চোট। অস্ত্রোপচার করানো ছাড়া তাই খুব একটা বিকল্প আর থাকছে না।

কবে কোথায় অস্ত্রোপচার হবে, এখন শুধু সে সিদ্ধান্ত নেওয়ার বাকি। চিকিৎসকের সঙ্গে জাতীয় দলের কোচ-ফিজিওদের আলোচনার পর শুক্র-শনিবারের মধ্যেই সিদ্ধান্তটি হয়ে যাওয়ার কথা।

সাসেক্সের হয়ে ন্যাটওয়েস্ট টি-টোয়েন্টি ব্লাস্টে অভিষেকেই বাজিমাত করেন মুস্তাফিজ। দলকে জেতাতে চার উইকেট নিয়ে হন ম্যাচসেরা। দ্বিতীয় ম্যাচে অবশ্য উইকেট পাননি, দলও জেতেনি। এর পরই তো কাঁধের ব্যথায় কাতর কাটার মাস্টার।

প্রথম এমআরআই রিপোর্টেই ইংল্যান্ড থেকে দুঃসংবাদ ভেসে আসে। প্রথম এমআরআইতে মুস্তাফিজের কাঁধের স্ল্যাপে (সুপিরিয়র ল্যাব্রাম অ্যান্টিরিয়র অ্যান্ড পোস্টিরিয়র) সমস্যা ধরা পড়ে। বৃহস্পতিবার দ্বিতীয় এমআরআই রিপোর্টে জানা গেছে, এটি গ্রেড-২ শ্রেণির চোট। এই ধরনের সমস্যায় অস্ত্রোপচারের বিকল্প নেই।

বিসিবির মিডিয়া কমিটির প্রধান জালাল ইউনুস বলেছেন, ‘দ্বিতীয় এমআরআইতে মুস্তাফিজের কাঁধে ধরা পড়েছে গ্রেড-২। বিসিবির কোচ, ফিজিও, চিকিৎসকেরা এখন ওখানকার ফিজিও, চিকিৎসকদের সঙ্গে কথা বলে আমাদের পরবর্তী করণীয় সম্পর্কে জানবেন।’

অস্ত্রোপচার হলে অন্তত মাস ছয়েকের জন্য ক্রিকেটের বাইরে থাকতে হবে মুস্তাফিজকে। সেক্ষেত্রে অক্টোবরে ঘরের মাঠে ইংল্যান্ড সিরিজ ও ডিসেম্বরে নিউজিল্যান্ড সফরে খেলা হবে না দ্য ফিজের।