মেইন ম্যেনু

শেষ পর্যন্ত পোষা বিড়ালটি খুঁজে দিলো নিখোঁজ শিশুর মরদেহ

গোপালগঞ্জের মুকসুদপুরে নিখোঁজের ৪ দিন পর বাথরুমের সেপটিক ট্যাংক থেকে নাহীদ নামে ৪ বছরের এক শিশুর মরদেহ বৃহস্পতিবার উদ্ধার করেছে পুলিশ।

এ ঘটনায় জড়িত সন্দেহে তিনজনকে আটক করা হয়েছে ।

গত ২২ ফেব্রুয়ারী বাড়ী থেকে নিখোঁজ হয় নাহীদ। নিখোঁজের পর থেকেই সম্ভাব্য সব জায়গায় খুঁজেও তার সন্ধান পায়নি স্বজনরা।

শেষ পর্যন্ত তাদের পরিবারের পোষা বিড়ালের মাধ্যমে ঘরের পেছনের সেপটিক টাংক থেকে খুঁজে পাওয়া যায় শিশুটির মরদেহ।

নাহিদের বাবা বলেন, গ্রামে কারো সঙ্গেই আমার ঝগড়া বিবাদ নেই, পারিবারিক কোন জের ধরে কেউ হত্যাকাণ্ড ঘটাতে পারে।

শিশু নাহিদকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে বলে সন্দেহ পুলিশের ।

গোপালগঞ্জের সহকারী পুলিশ সুপার মোঃ আমীনুল ইসলাম বলেন, হত্যাকাণ্ডের মামলা প্রক্রিয়াধীন। অবশ্যয় আমরা হত্যাকারীদের ধরে আইনের আওতায় নিয়ে আসা হবে।

নাহিদের মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য গোপালগঞ্জ সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়।