মেইন ম্যেনু

শেষ হলো সেই বাঘ-ছাগলের বন্ধুত্ব (ভিডিও)

রাশিয়ার একটি সাফারি পার্কে একসঙ্গে থাকা বাঘ-ছাগলের দুই মাসের বন্ধুত্বের শেষ পর্যন্ত সমাপ্তি ঘটেছে। নিজেদের মধ্যে খুনসুটির একপর্যায়ে দুই ‘বন্ধু’ একে অপরের ওপর হামলা চালালে শেষ পর্যন্ত তাদের সম্পর্কের ইতি ঘটে।

গত বছরের ডিসেম্বরে ভ্লদিভস্টক শহরের বাইরে অবস্থিত প্রিমরস্কি সাফারি পার্কে থাকা আমুর নামের বাঘটির খাবারের জন্য একটি জ্যান্ত ছাগল ছেড়ে দেওয়া হয়। তবে মজার ব্যাপার হচ্ছে, বাঘকে দেখার পর ছাগলটি একটুও ভীত হয়নি। উল্টো আমুরের দিকে তেড়ে এসেছিল গুঁতা দেওয়ার জন্য। আমুর অবশ্য এরপর তিমুর নামের ওই ছাগলটিকে হত্যা করেনি। পরে আমুর ও তিমুরের মধ্যে বেশ ভালো বন্ধুত্ব হয়েছে। তিমুর সে গুহাটিতে থাকে, তার ঠিক ওপরেই রাত কাটাত আমুর। বাঘের শিকার হওয়ার পরিবর্তে বন্ধু বনে যাওয়ায় পার্কে লতা-পাতা খেয়ে বেশ নাদুসনুদুস হয়ে ওঠে তিমুর।

পার্কের কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, একসঙ্গে বসে সময় কাটানোর সময় আমুর হয়তো তিমুরকে ‘দুর্বল’ বলে খোঁচা দিয়েছিল। এর পরই তিমুর ক্ষিপ্ত হয়ে তার শিং দিয়ে আমুরকে গুঁতা দেয় এবং তাকে ঠেলতে শুরু করে। আমুরও তিমুরের ঘাড়ে থাবা বসিয়ে দেয়। তবে বন্ধুকে সে হত্যা করেনি। এর পরই তিমুরকে সেখান থেকে চলে যেতে দেখা যায়। পার্কের কর্মকর্তারা দ্রুত ভেতরে প্রবেশ করে তিমুরকে চিকিৎসা দিয়েছেন।

তবে কর্মকর্তারা আশা প্রকাশ করেছেন, ভবিষ্যতে হয়তো আমুর ও তিমুর পরস্পরকে ক্ষমা করবে এবং তাদের বন্ধুত্বের সম্পর্ক পুনরুজ্জীবিত করবে।

ভিডিওটি দেখতে এখানে ক্লিক করুণ…