মেইন ম্যেনু

শোলাকিয়ার হামলাকারীদের বয়স ২০ থেকে ২৫

কিশোরগঞ্জের ঐতিহাসিক শোলাকিয়া ঈদগাহ ময়দানের পাশে বোমা হামলাকারীরা সবাই যুবক বয়সী। তাদের প্রত্যেকের বয়স ২৫ থেকে ৩০ এর মধ্যে বলে প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা গেছে। সাত থেকে আটজনের একটি দল এই বোমা হামলা চালিয়েছে বলেও পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শী সূত্র নিশ্চিত করেছে।

পুলিশ জানায়, হামলাকারীদের বয়স ২৫ থেকে ৩০ বছরের মধ্যে। তাদের প্রত্যেকের পরনে পাঞ্জাবি ও পায়জামা । মুসল্লিদের সঙ্গে মিশে তারা পুলিশের কাছাকাছি চলে আসে এবং কিছু বুঝে ওঠার আগেই অতর্কিতে তারা বোমা নিক্ষেপ করে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, হামলাকারীরা অসম্ভব ক্ষিপ্রতার সঙ্গে পুলিশের ওপর হামলা করে। তারা বোমা নিক্ষেপের সঙ্গে সঙ্গে চাপাতি দিয়ে পুলিশের ওপর ঝাপিয়ে পড়ে। এলোপাতাড়ি কুপিয়ে তারা পুলিশ সদস্যদের জখম করে। পুলিশ গুলি চালালে তারাও দ্রুততার সঙ্গে পাল্টা গুলি ছোড়ে।

এদিকে,নিহত হামলাকারীর পরনে রয়েছে হালকা নীল পাঞ্জাবি ও পায়জামা। আটক এক সন্দেহভাজন হামলাকারীর পরনে লাল রঙের পাঞ্জাবি। এই যুবকের মুখে ফ্রেঞ্চকাট দাড়ি রয়েছে।

পুলিশ জানায়, আহত অবস্থায় ঘটনাস্থল থেকে আবু মুকাদ্দিন, মামুন ও আহসানুল্লাহ নামে তিনজনকে আটক করা হয়েছে। তবে নিহত সন্দেহভাজনের পরিচয় এখনও নিশ্চিত করতে পারেনি পুলিশ।

প্রসঙ্গত, কিশোরগঞ্জের ঐতিহাসিক শোলাকিয়া ঈদগাহ ময়দানের আধা কিলোমিটারের মধ্যে বোমা হামলায় দুই পুলিশ সদস্যসহ চারজন নিহত এবং কমপক্ষে ১২ জন আহত হয়েছেন। নিহতদের মধ্যে একজন নারী রয়েছেন, তার নাম ঝর্ণা রানি ভৌমিক। প্রাথমিকভাবে জানা গেছে, তিনি গুলিবিদ্ধ হয়ে নিহত হন। নিহত আরেকজন হামলাকারী বলে জানিয়েছে পুলিশ।