মেইন ম্যেনু

শ্যাম্পু ব্যবহারের কতিপয় কিছু ভুল

চুলে শ্যাম্পু করা অতি সাধারণ রুটিন। তবে এই কাজে খুঁটিনাটি সাধারণ কিছু ভুল করেন অনেকেই।

চুল ভালোভাবে না ভেজা: শ্যাম্পু করার আগে চুল ভালোভাবে ভেজানো না হলে, শ্যাম্পু তার কাজও ভালোভাবে করতে পারে না। ফলে চুল রুক্ষ, শুষ্ক হয়ে যায়। তাই চুলে শ্যাম্পু দেওয়ার আগে দুতিন মিনিট পর্যন্ত চুল ভিজিয়ে নেওয়া উচিৎ।

শ্যাম্পু বাছাইয়ে ভুল: চুলের ধরন অনুযায়ী শ্যাম্পু বাছাই করা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। আর এজন্য জানতে হবে আপনার চুল শুষ্ক, তৈলাক্ত নাকি ভঙ্গুর। প্রয়োজনে চুল বিশেষজ্ঞের পরামর্শও নিতে পারেন। পাশাপাশি এড়িয়ে চলতে শ্যাম্পু ও কন্ডিশনার একসঙ্গে আছে এমন পণ্য। আপাত দৃষ্টিতে এটি খরচ কমানোর উৎকৃষ্ট পথ মনে হলেও প্রকৃতপক্ষে একটি পণ্য দিয়ে চুল শ্যাম্পু ও কন্ডিশনিং উভয়ই করা সম্ভব নয়। দীর্ঘদিন একই শ্যাম্পু ব্যবহার করাও চুলের জন্য ক্ষতিকর হতে পারে।

ঘন ঘন শ্যাম্পু ব্যবহার: প্রতিদিন চুল শ্যাম্পু করা উচিত নয়। এতে চুল রুক্ষ হয়ে যেতে পারে। কমপক্ষে একদিন পর পর শ্যাম্পু করতে হবে। চুলে অতিরিক্ত ধুলাবালি লেগে গেলে ‘ড্রাই শ্যাম্পু’ ব্যবহার করতে পারেন।

চুল ধোয়ায় ভুল: ব্যবহারের পর দ্রুত ধুয়ে ফেললে শ্যাম্পু ঠিক মতো কাজ করার সুযোগ পায় না। চুল মালিশ করে কয়েক মিনিট রেখে তারপর ধুয়ে ফেলুন। আর গরম পানি দিয়ে চুল ধোয়া এড়িয়ে চলার চেষ্টা করুন। ঠাণ্ডা পানি দিয়ে ধুলে চুলের গোঁড়া বন্ধ হয়। ফলে কেশ হয় ঝলমলে ও নরম। পাশাপাশি চুল পড়াও কমে।

সঠিক স্থানে শ্যাম্পু না পৌঁছানো: চুলের গোঁড়ায় শ্যাম্পু পৌঁছানো বেশি জরুরি। মনে রাখতে হবে শ্যাম্পু বেশি দরকার হয় চুলের গোঁড়ায়। আর কন্ডিশনার কাজ করবে চুলের আগার দিকে। পাশাপাশি প্রতিবার শ্যাম্পু করার সময় মাথার একই জায়গায় শ্যাম্পু ঢালা হলে সেখানের ত্বক শুষ্ক হয়ে যেতে পারে।