মেইন ম্যেনু

শ্যাম্পু ব্যবহারে ভুল করছেন? মিলিয়ে নিন

চুলে শ্যাম্পু করা অনেকটা রুটিন মাফিক ব্যাপার। কিন্তু শুনে আশ্চর্য হবেন, এক্ষেত্রে অধিকাংশ ব্যক্তিই ভুল করে থাকেন।চুলের স্বাস্থ্য ঠিক রাখতে এই ভুলগুলো এড়িয়ে চলতে হবে। আসুন জেনে নেয়া যাক সেই ভুলগুলো আসলে কী-

ভুল শ্যাম্পু ব্যবহার: চুলের ধরন অনুযায়ী শ্যাম্পু ব্যবহার করুন। শুষ্ক, তৈলাক্ত, ভঙ্গুর ইত্যাদি নানা ধরনের চুল হতে পারে। চুল অনুযায়ী শ্যাম্পু নির্ণয় করতে প্রয়োজনে হেয়ার স্টাইলিস্ট বা ট্রিকোলজিস্টের(চুল এবং করোটি বিশেষজ্ঞ) পরামর্শ গ্রহণ করতে পারেন। টাকা বাঁচাতে অনেকেই টুইন ইন ওয়ান(শ্যাম্পু ও কন্ডিশনার) ব্যবহার করেন। একই পণ্যের মাধ্যমে একই সময়ে শ্যাম্পু এবং কন্ডিশনিং সম্ভব নয়। তাই শ্যাম্পু এবং কন্ডিশনার আলাদা আলাদা ব্যবহার করুন।

চুল পর্যাপ্ত না ভেজানো: শ্যাম্পু করার আগে চুল অবশ্যই ভালোভাবে ভিজিয়ে নিন। অন্যথায় শ্যাম্পু ঠিকভাবে কাজ করবে না এবং এটি আপনার চুল শুষ্ক করে ফেলবে। চুল শ্যাম্পুর করার আগে শাওয়ারের নিচে দুই থেকে তিন মিনিট চুল ভিজিয়ে নিন।

চুলের মূল অংশে শ্যাম্পু না করা: শ্যাম্পু করার নিয়ম হচ্ছে চুলের গোঁড়া থেকে একদম আগা পর্যন্ত। যখন গোসল করবেন তখন চুলের গোঁড়া পর্যন্ত শ্যাম্পু করুন এবং চুলের অগ্রভাগ পর্যন্ত কন্ডিশনার ব্যবহার করুন। তবে মনে রাখবেন, প্রতিদিন করোটি বা মাথার খুলির একই অংশ থেকে শ্যাম্পু ব্যবহার শুরু করবেন না। কারণ যে জায়গায় শ্যাম্পুর ব্যবহার হচ্ছে না সেই জায়গায় শুষ্কতা দেখা দিতে পারে।

প্রায়ই চুল ধোয়া: প্রতিদিনই চুল ধোয়ার প্রয়োজন নেই। এতে চুল শুষ্ক হয়। একদিন অন্তর অন্তর শ্যাম্পু ব্যবহার করুন। চুল চটচটে বা ময়লা হয়ে গেলে অল্প পরিমাণে ড্রাই শ্যাম্পু ব্যবহার করুন। এতে চুলে বাড়তি একটা টেক্সচার তৈরি হবে।

ভুল পদ্ধতিতে চুল পরিষ্কার: চুলে শ্যাম্পু লাগানোর পর তা দ্রুতই ধুয়ে ফেলা উচিত নয়। এতে শ্যাম্পু যথাযথভাবে কাজ করার সুযোগ পায় না। চুলে ফেনা ওঠার পর কয়েক মিনিট পর ধুয়ে ফেলুন। আপনি যদি গরম পানি দিয়ে গোসল করা পছন্দ করেন তাহলে অবশ্য চুল ঠাণ্ডা পানি দিয়ে ধুয়ে নিন। এতে আপনার চুল উজ্জ্বল, নরম হবে এবং চুল পড়া বন্ধ করবে।