মেইন ম্যেনু

শ্রীলঙ্কায় ঐতিহাসিক জয়ে যা বললেন সাবেক অধিনায়করা

আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে বাংলাদেশের উত্থানের নতুন অধ্যায় রচিত হলো কলম্বোর পি সারা ওভালে। ওয়ানডেতে নিজেদের যোগ্যতা প্রমাণের পর নিজেদের শততম টেস্টে শ্রীলঙ্কাকে চার উইকেটে হারিয়েছে তারা। জয়টা যে ঐতিহাসিক বলার অপেক্ষা রাখে না। এমন ক্ষণে দলকে অভিনন্দন জানালেন দেশের সাবেক অধিনায়করা।

শ্রীলঙ্কার মাটিতে বাংলাদেশের এ জয়কে সমালোচকদের পাল্টা জবাব মনে করছেন ফারুক আহমেদ। সাবেক অধিনায়ক ও নির্বাচক মুশফিকদের অভিজ্ঞতার দিকটি তুলে ধরলেন।

ফারুক আহমেদ বলেন, ‘শততম টেস্টের বিজয় উপলক্ষে দলকে অভিনন্দন জানাই। বাংলাদেশ গত কয়েক বছর ধরেই ভালো খেলছে। এর ধারাবাহিকতায় এবার বিদেশের মাটিতে জিতল গুরুত্বপুর্ণ একটি টেস্টর্। বাংলাদেশ দেশের বাইরে টেস্ট জিততে পারে না এই কথা ভুল প্রমাণিত করল মুশফিকরা। দলের সাফল্যের মূলে অবশ্যই টিমওয়ার্ক।’

সিনিয়রদের দায়িত্ব নেওয়ায় বেশ খুশি ফারুক, ‘তামিম-সাকিব-মুশফিকরা যেভাবে দায়িত্ব নিয়ে খেলেছে তাতে দল এগিয়ে গেছে বহুদূর। বাংলাদেশের এই জয় আসলেই রোমাঞ্চকর।’

বর্তমান নির্বাচক ও সাবেক অধিনায়ক হাবিবুল বাশারের ভালো লেগেছে বাংলাদেশের সার্বিক টিমওয়ার্ক। তিনি বলেছেন, ‘ওয়ানডেতে ব্যাটিং খারাপ করে বোলিং ভালো করে জেতা যায় বা বোলিং খারাপ করে ব্যাটিং দিয়ে ম্যাচ জেতা যায়। কিন্তু টেস্টে এটি হয় না। এখানে সমসময়ই প্রতিপক্ষের চেয়ে ভালো নৈপুণ্য দেখাতে হয়। এ টেস্টে বাংলাদেশ সবদিকেই ভালো করেছে। শততম টেস্টে দেশের এই জয়ের প্রতিক্রিয়া জানানোর ভাষা আমার নেই। একজন সাবেক ক্রিকেটার হিসেবে আমার বুক ভরে গেছে গর্বে। বাংলাদেশের এই সাফল্য ধারা অব্যাহত থাকবে এটিই আমার প্রত্যাশা।’

খালেদ মাসুদ পাইলটের নেতৃত্বে ২০০৯ সালে বাংলাদেশ বিদেশের মাটিতে জিতেছিল প্রথম টেস্ট। মুশফিকের নেতৃত্বে শততম টেস্টে দলের জয় দেখে আনন্দের সীমা নেই তার, ‘টেস্টে মানসিক দৃঢ়তা গুরুত্বপূর্ণ। আজকের জয়ে বাংলাদেশ অর্জন করেছে আগামীর অনুপ্রেরণা। যেটা বাংলাদেশকে ভবিষ্যতে পথ চলতে সাহায্য করবে। এই টেস্টে বাংলাদেশের মানসিক দৃঢ়তা ছিল লক্ষণীয়। লক্ষ্যে অবিচল ছিল খেলোয়াড়রা। এটিই ছিল সাফল্যের মূল কারণ।’

কলম্বোর পি সারা স্টেডিয়ামে রোববার শ্রীলঙ্কার মাটিতে ইতিহাস সৃষ্টি করে বিশাল জয় পেয়েছে বাংলাদেশ। এর আগে শততম ওয়ানডেতে জয় পেয়েছে বাংলাদেশ। এবার শততম টেস্ট ম্যাচেও জয় পেল টাইগাররা। মুশফিকের নেতৃত্বে বাংলাদেশ শ্রীলঙ্কার মাটিতে এই টেস্ট জিতেছে ৪ উইকেটে। ম্যাচে তামিম ইকবাল ৮২ রানের ইনিংস খেলেছেন। সাব্বির রহমান করেছেন ৪১ রান।