মেইন ম্যেনু

সংখ্যালঘুদের জন্য সংসদে সংরক্ষিত আসনের দাবি এরশাদের

জাতীয় সংসদে সংখ্যালঘুদের জন্য সংরক্ষিত আসন রাখার দাবি জানিয়েছেন জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান সাবেক রাষ্ট্রপতি হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ।

বড়দিন উপলক্ষে সোমবার রাজধানীর বনানীস্থ জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যানের কার্যালয়ে খৃস্টান সম্প্রদায়ের সঙ্গে শুভেচ্ছা ও মতবিনিময় অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে বক্তব্যে এই দাবি জানান তিনি।

এরশাদ বলেন, ‘বাংলাদেশ সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতির দেশ হিসেবে ধর্মীয় সংখ্যালঘুদের জানমালের নিরাপত্তাসহ তাদের সকল নাগরিক অধিকার নিশ্চিত করতে হবে। তারা যাতে কোনভাবে বঞ্চিত না হয় সেজন্য সংসদে সংরক্ষিত আসন, সরকারি চাকরি এবং উচ্চ শিক্ষার সুযোগের ক্ষেত্রে কোটা ব্যবস্থা প্রবর্তন করতে হবে।’

তিনি বলেন, আমাদের খৃষ্টান সম্প্রদায়ের ভাইয়েরা দেশকে সম্মানিত করেছেন। কারণ, এবার আমাদের দেশ থেকে প্রথমবারের মতো কার্ডিনাল নিযুক্ত হয়েছেন।

সাবেক রাষ্ট্রপতি বলেন, জাতীয় পার্টির শাসনামলে পোপ দ্বিতীয় জন পল বাংলাদেশে সফর করেছেন। রাষ্ট্রপতি হিসেবে আমি প্রথমবার ভ্যাটিকান সফর করে পোপের সাথে সাক্ষাৎ করেছি।

জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান বলেন, আমার শাসনামলে সংখ্যালঘুদের নির্যাতনের শিকার হতে হয়নি। তাদের জানমালের নিরাপত্তা ছিল। জাতীয় পার্টি আবার যদি ক্ষমতায় যেতে পারে- তাহলে সংখ্যালঘুদের স্বার্থ রক্ষা হবে, তাদের নিরাপত্তা থাকবে এবং ধর্মীয় স্বাধীনতা থাকবে।

তিনি সকল সম্প্রদায়ের জনগণকে জাতীয় পার্টির পতাকাতলে সমবেত থাকার আহ্বান জানান।

খৃস্টান সম্প্রদায়ের গাজীপুর অঞ্চলের নেতা ডেভিড গমেজের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিনে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন জাতীয় পার্টির কো-চেয়াম্যান জিএম কাদের, মহাসচিব এবিএম রুহুল আমিন হাওলাদার এমপি, প্রেসিডিয়াম সদস্য সুনীল শুভরায়, ভাইস চেয়ারম্যান নুরুল ইসলাম নুরু, কেন্দ্রীয় নির্বাহী সদস্য ও গাজীপুর মহানগর জাতীয় পার্টির সাধারণ সম্পাদক জয়নাল আবেদীন এবং খৃস্টান সম্প্রদায়ের পক্ষ থেকে পিউস গমেজ ও রনি গমেজ।

এসময় কেন্দ্রীয় নেতাদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন- প্রেসিডিয়াম সদস্য এসএম ফয়সাল চিশতী, ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুস সাত্তার প্রমুখ।