মেইন ম্যেনু

সংশোধন হচ্ছে বিএনপির গঠনতন্ত্র

আগামী মার্চের ১৯ তারিখে হওয়া ষষ্ঠ কাউন্সিলে দলের গঠনতন্ত্রে সংশোধন আনা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন দলটির যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী আহমেদ।

রোববার দুপুরে রাজধানীর নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ তথ্য জানান।

রুহুল কবির রিজভী আহমেদ বলেন, ‘দলের গঠনতন্ত্র সংশোধনের জন্য একটি ধারা আছে। সে ধারা অনুযায়ী আসন্ন কাউন্সিলে দলের গঠনতন্ত্রে সংশোধন আনা হচ্ছে। এ লক্ষ্যে দলের মহাসচিবের কাছে প্রস্তাব পাঠাতে সারাদেশের কাউন্সিলরদের চিঠি দেওয়া হয়েছে।’

কাউন্সিলরদের দেওয়া প্রস্তাবগুলো গঠনতন্ত্র সংশোধনের উপ কমিটিতে যাবে জানিয়ে তিনি বলেন, ‘কাউন্সিলকে সফল করতে একাধিক উপকমিটি গঠনের কাজ চূড়ান্ত পর্যায়ে রয়েছে। দু-একদিনের মধ্যে এসব কমিটি গঠিত হবে।’

বর্তমান সরকার রাষ্ট্রক্ষমতা বেআইনীভাবে জোর করে ধরে রেখেছে দাবি করে তিনি বলেন, সরকার জনরোষে উৎখাত হওয়ার ভয়ে গুম-খুন-নিখোঁজ করা এবং বিচার বহির্ভূত হত্যার ধারাবাহিক লোমহর্ষক ঘটনা ঘটিয়ে যাচ্ছে।’

প্রধানমন্ত্রীর প্রতিনিয়ত হুমকিতে জাতি আজ আক্রান্ত দাবি করে তিনি বলেন, ‘দেশবাসীর কাছে তিনি (প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা) যেন এখন হুমকি-কন্যা হিসেবে পরিচিতি লাভ করেছেন।’ মানুষের সব স্বাধীনতা শেখ হাসিনার বাকশালে বন্দী হয়েছে বলেও মন্তব্য করেন তিনি।

নির্বাচন কমিশন বেহায়ার মতো আচরণ করছে বলে অভিযোগ করে তিনি বলেন, স্বাধীন সাংবিধানিক মর্যাদার প্রাচীর ভেঙ্গে দিয়েছে বর্তমান নির্বাচন কমিশন। তাদের বিরুদ্ধে হাজারো অভিযোগ উত্থাপিত হলেও তারা সরকারের ইচ্ছা পূরণে নিষ্ঠার সঙ্গে কাজ করে যাচ্ছেন।’

নির্বাচন কমিশনারদের যদি ন্যূনতম শরম থাকতো তাহলে তারা অনেক আগেই পদত্যাগ করতেন। মন্তব্য করে তিনি বলেন, ‘বর্তমান নির্বাচন কমিশনকে এখন গণতন্ত্র ধ্বংসের এক অবিস্মরণীয় ব্যঙ্গ চিত্র হিসেবে জনগণ দেখছে।’

সংবাদ সম্মেলনে আরও উপস্থিত ছিলেন, বিএনপির আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক নাজিম উদ্দিন আলাম, শিক্ষা বিষয়ক সম্পাদক খায়রুল কবির খোকন, যুব বিষয়ক সম্পাদক সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলাল প্রমুখ।