মেইন ম্যেনু

সংসদে অর্থমন্ত্রীর পদত্যাগ দাবি

দায়িত্বে থাকা অবস্থায় ব্যাংক খাতে সাগর চুরির বিষয়টি স্বীকার করায় অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিতের পদত্যাগ দাবি করেছেন জাতীয় পার্টির সংসদ সদস্য জিয়াউদ্দিন আহমেদ বাবলু।

বৃহস্পতিবার জাতীয় সংসদে প্রস্তাবিত বাজেটের উপর সাধারণ আলোচনায় অংশ নিয়ে তিনি এ দাবি জানান। বাবলু বলেন, ব্যাংকখাতে সাগর চুরির বিষয়টি স্বীকারের পর তার মন্ত্রী হিসেবে থাকার কোন প্রয়োজন আছে বলে মনে করি না।

তিনি আরো বলেন, ব্যাংকের রিজার্ভ থেকে ছয় হাজার কোটি টাকা চুরি পর লজ্জায় গভর্নরের পদ থেকে সরে দাঁড়িয়েছেন আতিউর রহমান। আপনার কি একটু চক্ষু লজ্জা হয় না এত কিছুর পরও আপনি কিভাবে অর্থমন্ত্রীর দায়িত্বে রয়েছেন।

জাপার সাবেক এ মহাসচিব বলেন, সম্প্রতিক সময়ে যে রিজার্ভ চুরির ঘটনা ঘটেছে তা দিয়ে পদ্মা সেতু নির্মাণ করা যেত। ৩ কোটি ৪০ লাখ ৯৭ কোটি টাকার বাজেট দিয়েছেন। এখানে ঘাটতি রয়েছে ৯৭ হাজার ৮৫৩ কোটি টাকা। আপনি গত অর্থবছরে দুই লাখ ৯৫ হাজার ১০০ কোটি টাকার বড় বাজেট দিয়ে কাঁট-ছাট করেছেন। এবার বলছেন বাজেট বাস্তবায়ন সম্ভব হবে। আপনার হতে কি আলাদীনের চেরাগ রয়েছে যে আপনি এ ঘাটতি মেটাবেন?

জাতীয় পার্টির এ নেতা বলেন, আপনি মন্ত্রী থাকা অবস্থায় শেয়ারবাজার লুট হয়েছে। অনেকে সর্বশান্ত হয়েছে। শেয়ারবাজারে সূচক এখন ৪ হাজার কোটি টাকাতে রয়েছে। পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে শেয়ারবাজারে টাকা দিয়ে অর্থনৈতিকে মজবুত করে। আর আমাদের ব্যাংকের উপর নির্ভরশীল হতে হয়।

সাম্প্রতিক সময়ে বিবিএসের তথ্য মতে, দেশে বেকারের সংখ্যা ২৬ লাখের উপরে। যার ৭৪ শতাংশ যুবক। যাদের আমরা কাজে লাগাতে পারছি না। তরুণ প্রজন্মকে কাজে লাগাতে না পারায় তারা ইয়াবা, জঙ্গিবাদের দিকে যাচ্ছে। এর জন্য কে দায়ী?

বাবলু বলেন, দেশে বর্তমানে তেমন বিনিয়োগ নেই। বিভিন্ন খাতে লুটপাটের পরও বিচার হচ্ছে না। এটা কি বঙ্গবন্ধুর সোনার বাংলাদেশ।